1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
কক্সবাজারে সাদাপোশাকে সাংবাদিক মুন্নাকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সন্ধ্যা ৬:০০ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর রয়েল আমলকী প্লাস দুর্দান্ত প্রতাপে বাজারজাত করা হচ্ছে টঙ্গীর মাদক সম্রাজ্ঞী আরফিনার প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা ও অবৈধ সম্পদের পাহাড় টঙ্গীতে মহাসড়ক দখল করে চাঁদাবাজি এ যেনো দেখার কেউ নেই পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে! শার্শায় মিটার ‘রিডিং’ না দেখেই অফিসে বসে করা হচ্ছে বিদ্যুৎ বিল,গ্রাহকদের মাঝে ক্ষোভ বাংলাদেশ সংবাদপত্র শিল্প পরিষদের ৮ম সভা অনুষ্ঠিত: সংবাদপত্র শিল্প টিকিয়ে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর  সহযোগিতা কামনা ভেজাল কোম্পানীর ভেজাল বাণিজ্যে স্বাস্থ্যসেবায় হুমকি  পত্রিকার প্যাডে সুইসাইড নোটসহ নদীতে মিলল যুবকের অর্ধগলিত লাশ ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান জমি দখল করতে না পারায় ইমরান কর্তৃক খালেদ আল মামুনের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার 
কক্সবাজারে সাদাপোশাকে সাংবাদিক মুন্নাকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

কক্সবাজারে সাদাপোশাকে সাংবাদিক মুন্নাকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ

 

নিজস্ব সংবাদদাতা :
কক্সবাজার শহর থেকে সাদাপোশাকে সাংবাদিক মনসুর আলম মুন্নাকে তুলে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। তবে আটকের বিষয়টি জানে না কক্সবাজার সদর থানা পুলিশ।

আজ বুধবার ( ৪ এপ্রিল প্রায় ২.৩০ মিনিটের সময় কক্সবাজার শহর থেকে তাকে গাড়িতে তুলে নেওয়া হয় বলে জানা গেছে। মনসুর আলম মুন্না দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ পত্রিকার কক্সবাজার জেলার স্টাফ রিপোর্টার হিসাবে কর্মরত।

সাংবাদিক মুন্না দীর্ঘদিন ধরে মাদক ও অপরাধীদের বিরুদ্ধে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন করে আসছিলেন। হঠাৎ করে কয়েকদিন দুর্বৃত্তরা অপহরণ করে নিয়ে মানসিকভাবে নির্যাতন চালায়। তারপর তার কাছ থেকে কয়েকটি স্ট্যাম্পের স্বাক্ষর রেখে ছেড়ে দেন। সাংবাদিক মুন্না প্রতিকার চাইতে কক্সবাজার সদর থানায় তিন দিন আগে একটি লিখিত অভিযোগ করেন।

সদর থানার ওসিকে সাংবাদিক মুন্না বারবার অনুরোধ করে বলেন স্যার আমাকে যে কোন সময় দুর্বৃত্তরা মেরে ফেলবে না হয় আমাকে বিভিন্নভাবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যদের দিয়ে হঠাৎ করে করেনি করবে।

এমনভাবে ওসিকে অনুরোধ করার পরেও তিন দিনেও কক্সবাজার সদর থানার ওসি কোন ব্যবস্থা নেই নি। আজ (৪ এপ্রিল) অনুমান দুপুর আড়াই ঘটিয়ার সময় কক্সবাজার শহরের লালদীঘির পাড় থেকে সাদা পোশাকে কয়েকজন ব্যক্তি তাকে তুলে নিয়ে যায়।

কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুজ্জামান বলেন, ‘সাংবাদিক মনসুর আলম মুন্না ও তার স্ত্রী আজ দুপুরে আমার সাথে দেখা করে গেছেন। তিনি যে অভিযোগ করেছেন এটি মামলা হয়েছে কিনা জানতে এসেছিলেন।

ওসির কাছে জানতে চান সাংবাদিকরা, সাংবাদিক মুন্নার বিরুদ্ধে কক্সবাজার থানায় কোন মামলা হয়েছে কিনা? ওসি বলেন কোন মামলা হয়নি। সাংবাদিক মুন্নাকে সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে গেছে কয়েকজন ব্যক্তি, আপনি শুনেছেন কিনা? জানতে চাইলে ওসি বলেন, আমি জানিনা। তবে আমি খোঁজখবর নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাবো।

এবিষয়ে দৈনিক প্রতিদিনের কাগজ এর আবাসিক সম্পাদক বেলাল উদ্দিন জানান,মুন্নার পরিবার ও তার সহকর্মীরা জানিয়েছেন, আজ দুপুর হাইটের সময় সাদা পোশাকে তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। আমরা বিষয়ে উদ্বোধন কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »