1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
কুমিল্লা-৫ এ সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সকাল ৭:৪৯ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
শার্শায় মিটার ‘রিডিং’ না দেখেই অফিসে বসে করা হচ্ছে বিদ্যুৎ বিল,গ্রাহকদের মাঝে ক্ষোভ বাংলাদেশ সংবাদপত্র শিল্প পরিষদের ৮ম সভা অনুষ্ঠিত: সংবাদপত্র শিল্প টিকিয়ে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর  সহযোগিতা কামনা ভেজাল কোম্পানীর ভেজাল বাণিজ্যে স্বাস্থ্যসেবায় হুমকি  পত্রিকার প্যাডে সুইসাইড নোটসহ নদীতে মিলল যুবকের অর্ধগলিত লাশ ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান জমি দখল করতে না পারায় ইমরান কর্তৃক খালেদ আল মামুনের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার  প্রবেশন সুবিধা পেল জবি শিক্ষার্থী তিথি কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের হিসাব রক্ষক শত কোটি টাকা অবৈধ সম্পদ অর্জনে, দুদকে অভিযোগ লেগুনা ড্রাইভার সোহেল ৩ থানায় গড়ে তুলেছে বিশাল এক সন্ত্রাসী বাহিনী যশোরে শীর্ষ সন্ত্রাসী জনপ্রতিনিধি দ্বারা খুন-১ আহত-১
কুমিল্লা-৫ এ সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ

কুমিল্লা-৫ এ সংসদ নির্বাচনের প্রার্থী সাংবাদিক নেতা শওকত মাহমুদ

রাকিব হোসেন মিলন বিশেষ প্রতিনিধি।

কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসন থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন বিএনপির সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ। (২২ নভেম্বর ২০২৩) বুধবার সন্ধ্যায় মুঠোফোনে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেন তিনি। তিনি জাতীয় প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের  সভাপতি ছিলেন।এছাড়াও তিনি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির  সহসভাপতির দ্বায়িত্ব পালন সহ বিভিন্ন কর্মকান্ডে লিপ্ত ছিলেন। তিনি জাতীয় দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ এর প্রশ্নের এক জবাবে বলেন,তৃণমূল বিএনপি থেকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব না,যদি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করি তাহলে স্বতন্ত্র হয়ে অংশগ্রহণ করার আশা ব্যক্ত করি। জানা যায়, কুমিল্লা-৫ আসন থেকে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেছেন ২৯ জন প্রার্থী।স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, স্বাধীনতার পর থেকে এই আসনটি আওয়ামী লীগের দখলেই ছিল বেশি। ১৯৯১ সালের ৫ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে সাংসদ হোন এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বদ্বী ছিলেন ধানের শীষ প্রতীকে আবদুল লতিফ। ১৯৯৬ সালের ৭ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনেও এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হোন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বদ্বী ছিলেন ধানের শীষ প্রতীকে আবুল কাশেম। ২০০১ সালের ৮ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকে বিজয়ী হোন অধ্যক্ষ মো: ইউনুস। তার নিকটতম প্রতিদ্বদ্বী ছিলেন নৌকা প্রতীকে এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু। ২০০৮ সালের ৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী হোন এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বদ্বী ছিলেন ধানের শীষ প্রতীকে এ এস এম আলাউদ্দিন ভূঁইয়া। ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হোন এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু। তার নিকটতম প্রতিদ্বদ্বী ছিলেন নাঙ্গল প্রতীকে জাতীয় পার্টির মনোনীত প্রার্থী শফিকুর রহমান। এরপর থেকে এই আসনটি আওয়ামী লীগের দখলেই রয়েছে। গত ১৪ এপ্রিল ২০২১ সালে এই আসনের এমপি সাবেক আইনমন্ত্রী, আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু মারা গেলে আসনটিতে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এডভোকেট আবুল হাসেম খান বিনা প্রতিদ্বদ্বীতায় নির্বাচিত হোন। মুলত এই আসনের আওয়ামী সমর্থিত অনেকবারের সাংসদ এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু’র মৃত্যুর পর আসনটিতে শুরু হয় আওয়ামীলীগের স্থানীয় নেতৃত্বের সংকট। ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে এ আসনের হাল ধরতে উঠেপড়ে লেগেছেন প্রয়াত মতিন খসরু’র পরিবারের সদস্যসহ প্রায় দুই ডজন আওয়ামী লীগ নেতা। এ নিয়ে আসনটিতে শুরু হয় গ্রুপিং। চলতে থাকে যার যার মতো করে কেন্দ্রে তদবির। মনোনয়ন পেতে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের চলছে লবিং নানা প্রচারণা ও দৌড়ঝাঁপ। এদিকে কুমিল্লা-৫ আসনে কে হবেন নৌকার মাঝি এ নিয়ে ভোটার মহলেও চলছিলো নানা জল্পনা-কল্পনা। সাধারণ ভোটারদের মধ্যে এ নিয়ে নানা কৌতূহলের অবসান ঘটিয়ে ২৬ নভেম্বর বিকেলে আওয়ামী লীগ ঘোষণা করেন ২৯৮ আসনের নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন প্রাপ্তদের নাম। বর্তমান এমপি এডভোকেট আবুল হাসেম খান ই আবারো নৌকার মনোনয়ন পেয়েছেন।সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, চায়ের দোকান, বাজার-ঘাট, সরকারি-বেসরকারি অফিস থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম- সবখানে একটাই আলোচনা- প্রার্থীরা কে কেমন? কার জনপ্রিয়তা বেশি? কাকে ভোট দিলে এলাকার উন্নয়ন হবে।স্থানীয় আওয়ামী লীগ সুত্রে জানা যায় যিনি মনোনীত হবেন তার হয়েই নৌকা প্রতীকে কাজ করবে তারা। স্থানীয় আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতা জানান, সাবেক আইনমন্ত্রী প্রয়াত এডভোকেট আবদুল মতিন খসরু এমপির বিদায়ে আসনটিতে নেতৃত্ব শূন্যতা দেখা দিয়েছে। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের গ্রুপিংয়ের কারণে আওয়ামী লীগের একক শক্তি অনেকটা হ্রাস পেয়েছে। তবে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের মধ্যে অনেকেই আছেন যারা প্রয়াত মতিন খসরু’র ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন। এছাড়াও অনেকেই আছেন এই আসনের জন্য যোগ্য প্রার্থী। তবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি শেখ হাসিনা যাকে মনোনীত করবেন তাকে নিয়েই কাজ করার আশা ব্যক্ত করেন একাধিক নেতাকর্মীরা। অপর দিকে বিএনপির নেতাকর্মীরা বলছেন নিরপেক্ষ নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছাড়া বিএনপি কোনো নির্বাচনে অংশ নেবে না। আন্দোলনের মাধ্যমে এ দাবি আদায় করে তারপর নির্বাচনে যেতে চায় তারা। তবে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এসুযোগে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের ত্যাগী নেতারা দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে সংসদে যেতে চায়। যদি ত্যাগী   নেতা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে তাহলে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে এবং নির্বাচনকে কেন্দ্র করে কুমিল্লা-৫ আসনে সহিসংতার সম্ভবনা রয়েছে। আর আ’লীগের মধ্যে  ঐক্য না হলে স্বতন্ত্র প্রার্থীর জয়ী হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »