1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
কে এই বহুরূপী মাইমুনা খাতুন মনি - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । রাত ৯:১১ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
গণপূর্তের ইএম কারখানা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ইউসুফের ভুয়া বিল ও কমিশন বাণিজ্য কার বলে বলিয়ান এলজিইডির বাবু নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আনসার এবং দালালদের চলছে প্রকাশ্যে ঘুষ বাণিজ্য  বেনাপোল কাস্টমস কর্মকর্তা এসি নুরের অবাধ ঘুষ বাণিজ্য গুচ্ছের পছন্দক্রমে সর্বোচ্চ আবেদন জবিতে টঙ্গীর মাদক সম্রাজ্ঞী আরফিনার বিলাসবহুল বাড়ী-গাড়ী রেখে থাকেন বস্তিতে! শরীয়তপুরে কিশোরীকে অপহরণের পর গনধর্ষণ বেনাপোল কাস্টমসে ফুলমিয়া নাজমুল সিন্ডিকেটের ডিএম ফাইলে অবাধ ঘুষ বাণিজ্য নারীঘটিত কারন দেখিয়ে জবির ইমামকে অব্যাহতি, শিক্ষার্থীরা বলছে সাজানো নাটক মিটফোর্ডের জিনসিন জামান এখন ইমপেক্স ল্যাবরেটরীজ (আয়) এর গর্বিত মালিক
কে এই বহুরূপী মাইমুনা খাতুন মনি

কে এই বহুরূপী মাইমুনা খাতুন মনি

 

নিজস্ব প্রতিবেদক :

নিজেকে মাইমুনা কখনো সহ মনিখান সহ নানা নামে নিজের আসল পরিচয় আড়াল করে বিশ্বব্যাপী বিস্তার করেছেন প্রতারণার জাল এই মাইমুনা মনি।

নিজের সংগঠনের নাম বিশ্ব বন্ধু ৯৩। এর মাধ্যমে সাহায্য অনুদান সংগ্রহ করার নামে হাতিয়ে নিয়েছেন কোটি কোটি টাকা। এসএসসি ব্যাচ ভিত্তিক গ্রুপগুলো কেন্দ্র করে তার এই প্রতারণা সহ নানা অভিযোগ তার বিরুদ্ধে। নারি কেলেঙ্কারী তো অহরহ হচ্ছে।
বিভিন্ন সংগঠনের নাম ব্যবহার করে কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া নারি কেলেঙ্কারি করা মাইমুনার কমন পেশা।

অনুসন্ধানে জানা যায় করো না সময় দেশ-বিদেশ থেকে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করেন মনি। না না কৌশলে বন্ধুদের কাছ থেকে হাতিয়ে নেন মোটা অংকের টাকা,সামাজিক ও পারিবারিক অবস্থা চিন্তা করে অনেকেই মুখ খুলেন না। উত্তরাতে রয়েছে তার অপকর্মের ঘাটি। বিষয়টি দৃষ্টান্ত হয় হঠাৎ করে তার এতটা বিলাসবহুল জীবনযাপনের জন্য। অনুসন্ধানে আরো জানা যায় তার নামে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট রয়েছে একাধিক। আবার লালমাটিয়া মহিলা কলেজ থেকে পাশ করেছেন বলে উল্লেখ করলেও কলেজ সুত্র জানা যায় ৯৩ থেকে ৯৭ পর্যন্ত কোনো সেকশনেই মাইমুনা নামে কাউকে পাওয়া যায়নি।যে মহিলা ৩ বছর আগেও ঢাকা ক্যান্টনমেন্টে ১০০ টাকায় ভাত বিক্রি করতো ও কেবল কোম্পানির কর্মচারী হলেও প্রতারণার মাধ্যমে এখন নিজে বনে গেছেন কেবল অপারেটর ব্যবসায়ী ।কোথায় তার আয়ের উৎস আবার একই সাথে উওরা রাজউক কমপ্লেক্স এর ব্যবসায়ী নেতাও বনে গেছেন । উত্তরা রাজউক মার্কেটে রয়েছে তার ৫ থেকে ৬টি দোকান,এর বাহিরও তার আরও দোকান রয়েছে ।সাথে একাধিক দামি গাড়ি অভিযাত্রার দোকানপাট সবই তার প্রতারণার ফসল।

নিজেকে তিনি দাবি করেন বাংলাদেশে তার নখের যোগ্য কোন মহিলা নাই। মাদার তেরেসা কেও কিছুই মনে করেন না তিনি। অনুসন্ধানে আরো জানা যায় এই মহিলা জঙ্গিদের সাথে তার আঁতাত।গুলশানের যে বাসায় জঙ্গিরা ভাড়া থাকতো, যে বাসা নিয়ে আজও মামলা চলমান এমনি কি বাড়িওয়ালার নামে মামলা থাকলেও সে নিজে করছে সেই বাড়িওয়ালার সহায়তা ।এমনকি গোপন তথ্য সূত্রে আরও জানা যায় বাড়ি আলার সাথে তার দহরম মহরম সম্পর্ক এবং ওই বৃদ্ধ বাড়িআলা প্যারালাইজড এ ভূগছে। ওই প্যারালাইজড বৃদ্ধ বাড়িওয়ালাকে সে সেবা-যত্ন করে এমনকি প্যাম্পপাসটাও পাল্টিয়ে দেয়।আর বিশেষ সূত্রে জানা যায় তার নিজ খরচে ডেলটা লাইফ ইন্সুরেন্স এবং সোনালী লাইফ ইন্সুরেন্সে ১০০০ মেম্বার এড করে যেটা কালো টাকাকে সাদা করার সহজ উপায় হিসেবে বেছে নেন । যার কিছু নম্বর আমরা সংগহ করে এমনি তাদের কাছ থেক তথ্য পাই তাদের শুধু ভোটার আইডি সংগ্রহ করে সে নিজে সই দিয়ে তাদের এই দুইটা ইন্স্যরেন্সের সদস্য বানায়।কোন এক পত্রিকার প্রতিনিধি যখন মায়মুনা খাতুন মনির কাছ থেকে এ সম্পর্কে জানতে চায় সে এমন সব উদ্ভট আচরণ করে ।

তার কাছে ওই পত্রিকার প্রতিনিধি জানতে চাইলে যে সিআইডিতে মামলা চলছে, ওই বাড়িওয়ালার হয়ে আপনি সব জায়গায় কেন এই মামলার জন্য দৌড়াচ্ছেন এতে আপনি কতটুকু লাভ ? উনি উল্টো সংবাদ কর্মীকে হাস্যকর ভাবে কটুক্তি করে যে খুব খাটছেন আমার পিছে খাটেন তাতে কোন লাভ নেই। কিছুই করতে পারবেন না আপনারা আমার। অনর্থক নিজের সময় নষ্ট করছেন। আমার হাত অনেকটা উপরে।

এবং সর্বশেষ তার বক্তব্যের নেয়ার জন্য তাকে কল দিলে কৌশলে সে এড়িয়ে যায়।

সমাজে এই ধরনের বিভিন্ন মানুষের নাম বাণিজ্য এবং বিভিন্ন সংগঠন দ্বারা অনুদানের অর্থ নিজ একাউন্টে রাখা, নারিকেলেঙ্কারী,মানুষের সাথে প্রতারণা, সাধারণ মানুষ এবং সংবাদকর্মীদের হুমকি-ধমকি প্রদান করা তার দৈনিন্দন কাজ। তারে অপকর্ম নিয়ে কেউ কথা বলতে গেলেই অকথ্যা অশ্লীল ভাষায় গালাগালি এবং হুমকির স্বীকারও হতে হয় । খবর আরও থাকছে পরের পর্বে ।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »