1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৪৬ নং ওয়ার্ড বাসীর কাছে জানতে চান কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । দুপুর ১২:৫২ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৪৬ নং ওয়ার্ড বাসীর কাছে জানতে চান কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৪৬ নং ওয়ার্ড বাসীর কাছে জানতে চান কাউন্সিলর নুরুল ইসলাম নুরু

স্টাফ রিপোর্টার:

প্রিয় ৪৬ নং ওয়ার্ডবাসীগণ আসালামুয়ালাইকুম,আপনাদের সকলের দোয়া, ভালোবাসা এবং সার্বিক সহযোগিতায় ২৪ বছর যাবৎ আমাকে আপনারা বার বার কাউন্সিলর নির্বাচিত করেছেন, তাই আমি এবং আমার পরিবার আপনাদের কাছে চির কৃতজ্ঞ। আমি আমার মেধা, সততা, নিষ্ঠা ও পরিশ্রম দিয়ে মাননীয় প্রতিমন্ত্রী মহোদয় সাহেবের সহযোগিতায় ১০০% মাদক নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলেও অনেকাংশ কমিয়ে এনেছি এবং ব্যাপক আকার ধারন করতে দেয়নি । কিন্তু গত ২৫ মে ২০২৩ ইং তারিখে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন এর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।তফসিল ঘোষণা হওয়ার পরে দেখা গেলো হঠাৎ করে ব্যাঙ্গের ছাতার মত অনেক প্রার্থী এসে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করলেন । এখন আমার প্রশ্ন হলো,এই প্রার্থীরা কেন নির্বাচন করলেন?এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজে এখোনো আমি পাই নাই । আমার প্রিয় ৪৬ নং ওয়ার্ড বাসীর কাছে আমার প্রশ্ন যারা আমার বিরুদ্ধে নির্বাচন করলেন তারা কারা? তারা আবার কেউ কেউ ভালো ভোট ও পেয়েছে। যারা নির্বাচন করেছে তাদের ২৪ বছরে কোনো দিন দেখলাম না মানুষের বিপদে আপদে পাশে দাঁড়াতে। ২০২০ সালে করোনা মহামারীর সময় তারা তো জীবন নিয়ে ঘরে বসেছিলেন আর আমি তো নীজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আপনাদের পাশে ছিলাম। যাই হউক সম্প্রতি সময় ডেংগু মশায় আমাদের ৪৬ নং ওয়ার্ডটি বিপর্যস্ত সেই সময় আমরা আমাদের অনেক আপন জন কে হারিয়েছি। কিন্তু জনপ্রতিনিধি হওয়ার জন্য যারা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলো তারা ৪৬ নং ওয়ার্ড বাসীর পক্ষে কোন কাজ করেতে। যাই হোক সব কিছু বিচার করবেন আপনারা আগামী দিনে। আল্লাহ বহমতে আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসায় এবারও আমাকে ৪৬ নং ওয়ার্ড থেকে একটানা ৫ বার নির্বাচিত করছেন। প্রথম যে দিন আপনারা আমাকে জনপ্রতিনিধি বানিয়েছেন,সেই দিন থেকে রাজনৈতিক বিবেচনায় আমি কোন মানুষের ক্ষতি করি নাই।এখন আমার মূল প্রশ্ন হলো ৪৬ নং ওয়ার্ড বাসীর কাছে গত ২৫ শে মে নির্বাচনের পরে আমাদের ৪৬ নং ওয়ার্ডে ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।সাধারণ জনগন উৎকন্ঠার মধ্য জীবন যাপন করছে।মাদক ব্যাবসা নিয়ন্ত্রণহীন হয়ে গেছে, কিশোর গ্যাং সাধারণ মানুষের জমি দখল মানুষের বাড়ি ঘর আগুন ধরিয়ে পুরিয়ে দেওয়া । ছিনতাইকারীদের দৌরাত্ম, অবৈধ ট্রাক-স্ট্যান্ড, কাভারভ্যান ইত্যাদি থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা উত্তোলন করা হয়।আমার জানামতে এই সব টাকার একটা বড় অংশ যায় সমাজ ধংস মাদক ব্যবসায়ীদের হাতে। তারা আবার মাদক এনে সমাজের যুব সমাজকে ধ্বংস করে।আর টংগীর যত চুরি ছিনতাই সব কিছুই নিয়ন্ত্রণ টংগীর একজন ভাসমান বিশাল যুব নেতার হাতে।সাম্প্রতিককালে বাংলাদেশের সবচেয়ে আলোচিত ঘটনা টংগীর রেল ডাকাতির ঘটনা,ঐ ঘটনায় অনেক অপরাধী গ্রেফতার হলেও মুল হোতা ধরা ছোয়ার বাহিরে,চলছে বীর দরপে।
প্রিয় এলাকাবাসী আপনারা ৪৬ নং ওয়ার্ড থেকে পরপর ৫ বার আমাকে কাউন্সিলর নির্বাচিত করেছেন। আমি ব্যাক্তি জীবনে আপনাদের অনেক দোয়া ভালো বাসা পেয়েছি।এখন আমার একটাই মাত্র স্বপ্ন,যে স্বপ্ন আমাকে দেখিয়েছে গাজীপুরের মাটি ও মানুষের প্রিয় নেতা ভাওয়াল বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার এমপি স্যার তার স্বপ্ন পূরণের লক্ষে আমরা একসাথে কাজ করে যাবো।আমরা আগামী প্রজন্মের জন্য আমাদের এলাকাটি আদর্শ বাসযোগ্য করে যাবো,এই জন্য সকলের সহযোগিতা দোয়া এবং সমর্থন চায়।জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু, জয় হোক মেহনতি মানুষের।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »