1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
গোসাইরহাটে অন্তঃসত্ত্বা নারীর ওপর হামলা - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সন্ধ্যা ৬:০২ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
বটিয়াঘাটার মাখঝানুল উলুম নুরানী ও মহিলা মাদ্রাসার সুপারের বিরুদ্ধে অনৈতিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করায় চাকরিচ্যুত হলো এক শিক্ষিকা  বিএমইটির ১১ স্মার্ট কার্ড জালিয়াতি: বিদেশ যেতে না পেরে দুর্ভোগে কর্মীরা কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবে সভাপতি আব্দুল গনী সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪৪ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোটের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্টিত মাদারীপুরে প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা দুই সহকারী সমাজসেবা অফিসারের পকেটে যমুনা লাইফের গ্রাহক প্রতারণায় ‘জড়িতরা’ কে কোথায় মেয়র বলে কথা: একাধিক পত্রিকায় পৌরসভার দুর্নীতি ও ভূমিদুস্যতার সংবাদ প্রকাশিত হলেও নিরব প্রশাসন বাংলাদেশে উদ্বোধন হলো টাটা মটরস-এর ‘টাটা যোদ্ধা ঔষধ প্রশাসনের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের প্রত্যাক্ষ মদদে ইউনানী, আয়ুর্বেদিক কোম্পানির প্রাণঘাতী ঔষধে বাজার সয়লাব স্নাতকের মেধা তালিকায় তৃতীয় স্থানে অবন্তীকা
গোসাইরহাটে অন্তঃসত্ত্বা নারীর ওপর হামলা

গোসাইরহাটে অন্তঃসত্ত্বা নারীর ওপর হামলা

 

আজিজুর রহমান বাবু, জেলা সংবাদদাতা, শরীয়তপুর

শরীয়তপুরের গোসাইরহাট উপজেলায় বেবী বেগম (২৮) নামে নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক নারী হামলার শিকার হয়েছেন। রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকালে উপজেলার নাগেরপাড়া ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের পূর্বেরচর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই অন্ত:সত্ত্বা নারীর ভাসুর মোয়াজ্জেম সরদার (৩৫), জা জোসনা বেগম (৩০) ও ননদ ফাতেমা বেগম (২৭)ও হামলার শিকার হয়েছেন। এঘটনায় ওই অন্ত:সত্ত্বার নারীর স্বামী ফারুক সরদার গোসাইরহাট থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

ফারুক সরদার জানান, রবিবার দুপুরে গোসাইরহাট থানার নাগেরপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খানের চাচাতো ভাই আজিজুল, এনামুল, সলেমান পূর্বেরচর গ্রামের এক স্কুলছাত্রকে মারধর করছিলো। এসময় ওই স্কুল ছাত্রের প্রতিবেশী আব্দুল জলিল সরদারের ছেলে ফারুক সরদার বাঁধা দিলে দেখে নিবে বলে হুমকি দিয়ে চলে যায় তারা। পরে বিকালে ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খানের নির্দেশে আজিজুল, এনামুল, সলেমান সহ ২০/২৫ জন লোক ফারুক সরদারের বাড়ি হামলা করে। ফারুক সরদারকে বাড়িতে না পেয়ে তার নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বেবী বেগম, বড়ভাই মোয়াজ্জেম সরদার, ভাবী জোসনা বেগম, ও বোন ফাতেমা বেগমকে মারধর করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে গোসাইরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী বেবী বেগমের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এঘটনায় গোসাইরহাট থানায় একটি অভিযোগ করেছেন।

এ ব্যাপারে ফারুক সরদার বলেন, আমার এক প্রতিবেশী স্কুলছাত্রকে মোজাম্মেল চেয়ারম্যানের ভাই এবং চাচারা মারধর করছে। আমি বাঁধা দেয়ায় আমাকে বাড়িতে এসে খোঁজে। পরে আমাকে না পেয়ে আমার বাড়ি ঘরে হামলা ও লুটপাট করে। আমার নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী, বড় ভাই, ভাবী ও বোনকে মারধর করেছে। আমি এর বিচার চাই।

আহত বেবী বেগম বলেন, মোজাম্মেল চেয়ারম্যানের ভাই এক স্কুলছাত্রকে মারতে ছিলো। আমার স্বামী বাঁধা দেয়ায় বাড়িতে এসে তাকে খোঁজাখুঁজি করে। পরে বাড়িতে না পেয়ে বাড়িঘর ভাঙচুর করে। আমাকে লাথি দিয়েছে, মারধর করেছে। আমার ভাসুর, জা ও ননদকেও মারধর করেছে। তারা গোসাইরহাট হাসপাতালে ভর্তি।

অভিযোগ অস্বীকার করে নাগেরপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক খান বলেন, আমি কোনোভাবেই এর সাথে জড়িত না। যদি কোনো অন্ত:সত্ত্বা নারীর ওপর হামলা হয়, সেটা অবশ্যই ন্যাক্কারজনক। প্রকৃত হামলাকারীদের আইনের আনার দাবি জানাচ্ছি।

গোসাইরহাট থানার ওসি পুস্পেন দেবনাথ বলেন, একটা অভিযোগ হয়েছে, আমরা তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »