1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
চৌদ্দগ্রামে বন বিভাগের মাটি কাঁটার বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । রাত ৮:২৬ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন কর্তৃক ‘মহান শহিদ দিবস’ ও ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ পালন পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ থানার সন্ধ্যা নদীর ভাংগন ঠেকানো যাচ্ছে না ইট ভাটার কারনে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশের পর সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু হেনা মোস্তাফার বদলি সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহের বিরুদ্ধে ব্যাপক দূর্ণীতির অভিযোগ তিতাস গ্যাস আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি নিয়ে মিথ্যাচার ইউনিয়ন আ’লীগের পদের বসেই বিপুল অর্থবৃত্তের মালিক জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র বুড়িচং উপজেলা কমিটি গঠন রিকশা এমদাদ বাহিনীর তাণ্ডবে অতিষ্ঠ বাড্ডাবাসী, থানায় মামলা আবুল মোল্লার বাড়িতে ভয়াবহ ডাকাতি ! শহর সমাজসেবা কার্যালয়-১,ঢাকা কর্তৃক বাস্তবায়িত কার্যক্রম সমূহ জোরদার করন” শীর্ষক সেমিনার
চৌদ্দগ্রামে বন বিভাগের মাটি কাঁটার বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট

চৌদ্দগ্রামে বন বিভাগের মাটি কাঁটার বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট

কুমিল্লা প্রতিনিধিঃ

২৭ ডিসেম্বর মঙ্গলবার অপরাহ্নে চৌদ্দগ্রাম উপজেলার ঘোলপাশা ইউনিয়নের আমানগন্ডা এলাকার শালুকিয়া মৌজায় অবস্থিত বন বিভাগের জায়গায় অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে ও আদালতের সুস্পষ্ট নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে কতিপয় দুষ্কৃতকারী মাটি কাটা ভেঁকু দিয়ে মাটি খনন করে নিয়ে যাচ্ছে।

এতে অত্র এলাকার সরকারি বনাঞ্চলের বিস্তীর্ণ এলাকায় আনুমানিক ৩০/ ৪০ ফুট পর্যন্ত গভীর গর্ত সৃষ্টি হয় ও বড় সাইজের সতেজ গাছ শিকড়সহ উপড়ে পড়া অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তানভীর হোসেনের আজকের অভিযান কালে ছিলেন দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার ও দৈনিক ভোরের চেতনা জেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক আবুল কালাম মজুমদার ও দৈনিক ভোরের চেতনা পত্রিকা সাংবাদিক ইয়াছিন ফারুক ভূঁইয়া এবং চৌদ্দগ্রাম থনা এস আই তোফায়েল আহমদ।

পরে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাহী (ইউএনও) ঘোলপাশা ইউপি চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড মেম্বার কে ঘটনাস্থলে উপজেলা নির্বাহীর নির্দেশ ক্রমে গ্রাম পুলিশ (আনসার) সহ আসেন।

তখন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অবৈধ ভাবে মাটি কাঁটার কারণে জব্দকৃত দুটি ভেকুর বিরুদ্ধে প্রয়োজনে ভেঁকুর মালিক সহ নিয়মিত মামলা করার নির্দেশ দেন।

চৌদ্দগ্রাম থানা পুলিশকে এবং ভেকু দুটিকে থানায় পৌঁছানোর দায়িত্ব বা জিম্মায় দেওয়া হয় ঘোলপাশা ইউপি চেয়ারম্যান, ও ওয়ার্ড মেম্বার ও অত্রস্থানে উপস্থিত বিজিবি সদস্যদের।

জানা যায় গত প্রায় ৬ গত আগ থেকে প্রতি রাতে এই মাটি কাঁটা চলছে এই নিয়ে বিভিন্ন পএিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পরও মাটি কাঁটা বন্ধ না হওয়ার কারণে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করতে বাধ্য হন।

সরজমিন গিয়ে মাটি কাঁটা সিন্ডিকেটের আস্তানা পাওয়া যায়, এভাবেই প্রায় ৪০ লক্ষ টাকার মাটি কাঁটা হয় বলে ধারণা করা যায়।

আরও জানা যায় বন বিভাগের দায়িত্বরত কর্মকর্তা, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের সদস্য এই মাটি কাঁটার জড়িত।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে উপস্থিত একজন জানান প্রতিনিয়ত বিনা অনুমতি তে এই বনের গাছ রসুল নামে জনৈক ব্যাক্তি নিয়মিত গাছ কেটে বাসা বাড়ি তে ব্যবহার ও বিক্রি করেন।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানভীর হোসেন সাংবাদিক আবুল কালাম মজুমদার কে সাহসী পদক্ষেপের জন্য ধন্যবাদ জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »