1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
টঙ্গী থেকে নিখোঁজ বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুকে নরসিংদী থেকে উদ্ধার - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সন্ধ্যা ৭:১৯ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ থানার সন্ধ্যা নদীর ভাংগন ঠেকানো যাচ্ছে না ইট ভাটার কারনে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশের পর সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু হেনা মোস্তাফার বদলি সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহের বিরুদ্ধে ব্যাপক দূর্ণীতির অভিযোগ তিতাস গ্যাস আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি নিয়ে মিথ্যাচার ইউনিয়ন আ’লীগের পদের বসেই বিপুল অর্থবৃত্তের মালিক জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র বুড়িচং উপজেলা কমিটি গঠন রিকশা এমদাদ বাহিনীর তাণ্ডবে অতিষ্ঠ বাড্ডাবাসী, থানায় মামলা আবুল মোল্লার বাড়িতে ভয়াবহ ডাকাতি ! শহর সমাজসেবা কার্যালয়-১,ঢাকা কর্তৃক বাস্তবায়িত কার্যক্রম সমূহ জোরদার করন” শীর্ষক সেমিনার ইউনিক হাসপাতালে সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে মারধর ও হয়রানির শিকার সাংবাদিক
টঙ্গী থেকে নিখোঁজ বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুকে নরসিংদী থেকে উদ্ধার

টঙ্গী থেকে নিখোঁজ বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুকে নরসিংদী থেকে উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টারঃ

গাজীপুর মেট্রোপলিটন টঙ্গী পূর্ব থানা এলাকা থেকে নিখোঁজ হওয়া বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশু মোঃ রাকিবুল ইসলাম (১২) কে নরসিংদী জেলার পলাশ থানা এলাকা থেকে উদ্ধার করে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। শিশুটি নিখোঁজ হওয়ার পর তার বাবা বাদী হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। ডায়েরি নং- ৮৭৩ তারিখ-১৫/০১/২০২৩ ইং সংক্রান্তে নিখোঁজ বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুর নামঃ মোঃ রাকিবুল (১২)পিতা- মোঃ রাব্বিল মিয়া, মাতা- মোছাঃ রুবিনা বেগম, গ্রাম- উত্তর জগতসার, থানা+ জেলা- ব্রাহ্মণবাড়িয়া।এ/পি- সাং- কাজীপাড়া সুমন মার্কেট, গাজীপুরা, ওয়ার্ড-৫০, থানা- টঙ্গী পূর্ব, গাজীপুর মহানগর গাজীপুর।নিখোঁজ এর পর তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই মোঃ মিলন মিয়া লিফলেট আকারে বিভিন্ন ফেসবুকে ছড়িয়ে দিয়ে ও বিভিন্ন এলাকার পরিবহনে লাগিয়ে দেন এবং খোঁজা খুঁজি করতে থাকেন, একপর্যায়ে নরসিংদী জেলার পলাশ থানা এলাকায় ভিকটিম মোঃ রাকিবুল ইসলাম অবস্থান করছে বলে জানতে পারে। গতকাল সোমবার সেখান থেকে ভিকটিমকে উদ্ধার করে টঙ্গী পূর্ব থানায় নিয়ে আসে।অতঃপর জিডি মূলে তার পিতার হেফাজতে হস্তান্তর করেন। এ বিষয়ে ভিকটিম এর বাবা মোঃ রাব্বিল মিয়া বলেন-আমার বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ছেলে নিখোঁজ হলে আমরা বিভিন্ন জায়গায় খোজাখুজি করি কিন্তু আমার ছেলে কোথাও খুজে পাই না। পরে টঙ্গী পূর্ব থানায় এসে একটি নিখোঁজ জিডি করি। এই জিডি মুলে তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই-মিলন স্যার আমার ছেলেকে উদ্ধার করে আমার কাছে ফেরত দেন। আমি বাংলাদেশ পুলিশের কাছে চির ঋণী হয়ে গেলাম। আমি ধন্যবাদ জানাই টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আশরাফুল ইসলাম স্যার ও এসআই-মিলন স্যার সহ সকল পুলিশ সদস্যকে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »