1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
পঞ্চগড়-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী: আব্দুল মালেক চিশতি - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । রাত ৯:০১ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
গণপূর্তের ইএম কারখানা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ইউসুফের ভুয়া বিল ও কমিশন বাণিজ্য কার বলে বলিয়ান এলজিইডির বাবু নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আনসার এবং দালালদের চলছে প্রকাশ্যে ঘুষ বাণিজ্য  বেনাপোল কাস্টমস কর্মকর্তা এসি নুরের অবাধ ঘুষ বাণিজ্য গুচ্ছের পছন্দক্রমে সর্বোচ্চ আবেদন জবিতে টঙ্গীর মাদক সম্রাজ্ঞী আরফিনার বিলাসবহুল বাড়ী-গাড়ী রেখে থাকেন বস্তিতে! শরীয়তপুরে কিশোরীকে অপহরণের পর গনধর্ষণ বেনাপোল কাস্টমসে ফুলমিয়া নাজমুল সিন্ডিকেটের ডিএম ফাইলে অবাধ ঘুষ বাণিজ্য নারীঘটিত কারন দেখিয়ে জবির ইমামকে অব্যাহতি, শিক্ষার্থীরা বলছে সাজানো নাটক মিটফোর্ডের জিনসিন জামান এখন ইমপেক্স ল্যাবরেটরীজ (আয়) এর গর্বিত মালিক
পঞ্চগড়-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী: আব্দুল মালেক চিশতি

পঞ্চগড়-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী: আব্দুল মালেক চিশতি

এনামুল,পঞ্চগড়,প্রতিনিধি:

পঞ্চগড়-২ (দেবীগঞ্জ-বোদা) আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডের প্রচার প্রচারণা করছেন আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ও তিন বারের নির্বাচিত উপজেলা পরিষদের সুযোগ্য চেয়ারম্যান মোঃ আব্দুল মালেক চিশতি।

নির্বাচনকে সামনে রেখে তার নির্বাচনী আসন পঞ্চগড়-২ (দেবীগঞ্জ-বোদা) এর বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রাম-গঞ্জে, হাট-বাজার, অফিস এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে উপস্থিত হয়ে বর্তমান সরকারের উন্নয়নমূলক প্রচার প্রচারণা করছেন তিনি। ভোটারদের সঙ্গে কুশল বিনিময় করে আব্দুল মালেক চিশতি বলেন,প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিগত ১৪ বছরে দেশে ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। দেশকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে গেছেন। দরিদ্রতা দূর করতে নানামুখী প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন। বিগত কোনো সরকার এ ধরনের উন্নয়নমূলক কাজ করতে পারেনি। দেশের এমন কোনো সেক্টর নেই,যেখানে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। বিশেষ করে, পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল নির্মাণ, বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট, বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, জেলে ভাতা, মাতৃত্বকালীন ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, বছরের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনা মূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ, উপবৃত্তি প্রদান,কমিউনিটি ক্লিনিকসহ দেশের সকল জেলার একাধিক দৃষ্টিনন্দন আধুনিক মডেল মসজিদ প্রধানমন্ত্রীর পক্ষেই করা সম্ভব হয়েছে। অসংখ্য উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জনসূত্রে জানা যায় মহান জাতীয় সংসদ নির্বাচন আসলে দেবীগঞ্জ উপজেলা সর্বস্তরের মানুষের আলোচনার ঝড় কিংবা ফেসবুকে ইতিমধ্যে ব্যাপক সাড়া দিয়েছে। স্বপ্ন পূরণের আশায় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকার মনোনয়ন প্রার্থী দেবীগঞ্জ উপজেলায়। কিন্তু দুঃখের বিষয় স্বাধীনতার পরবর্তী দেবীগঞ্জ উপজেলায় এখনো পর্যন্ত জাতীয় সংসদে মনোনয়ন না পাওয়ায় হতাশায় আছেন দেবীগঞ্জ উপজেলা বাসি। প্রতিবারের মত এবারও আশায় আছেন দেবীগঞ্জ উপজেলা সর্বস্তরের জনগণ। আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেবীগঞ্জ উপজেলা থেকে প্রার্থী করার দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

জীবন বৃত্তান্ত: মোঃ আব্দুল মালেক চিশতি পিতা: মৃত: জবান উদ্দিন মাতা: মৃত: আমিছা বেগম, জন্ম: ১/১০/১৯৫৭ খ্রি: শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতক (বিএ পাস) রাজনৈতিক জীবন বৃত্তান্ত ১৯৬৮ সালে ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে পড়া কালীন সময়ে দেবীগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের সদস্য হই। জাতির পিতার খুনিদের ফাঁসির রায় ঘোষণা হলে আমি পূর্ব প্রতিজ্ঞা মতে প্রায় ৫০০ জন ফকিরকে নিজ বাসভবনে একবেলা খাওয়ার ব্যবস্থা করি এবং বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের শহীদের রুহের মাগফেরাতের জন্য দোয়া করি। ১৯৬৯ সালে গণঅভ্যুত্থানের সময় ভূমিকা রাখি যা পঞ্চগড় জেলার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বইয়ে ৩ জায়গায় আমার নাম উল্লেখ আছে। ১৯৭৩ সালে দেবীগঞ্জ এন এন হাইস্কুলের ছাত্র সংসদ নির্বাচনে মুজিববাদী ছাত্রলীগের গোটা প্যালেন সহ ভি.পি হিসেবে ও সালাউদ্দিন ইউসুফ জিএস পদ সহ জয়যুক্ত হই। পরবর্তীতে ১৯৭৪ সালে থানা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করি ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু সহ পরিবারের নিহত হওয়ার পরে ছাত্রলীগ থানা শাখার সভাপতি নির্বাচিত হই। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু সহ পরিবারের নিহত হওয়ার পরে আমাকে ধরতে না পারায় ব্যর্থ হয়ে আমার পরিবারের উপর নির্যাতন করে তৎকালীন থানা পুলিশ। ড: নাজমুল হক রচিত পঞ্চগড় জেলার মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বইটিতে অসহযোগ আন্দোলন সহ সকল কর্মকান্ডে আমার স্বতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ কথা উল্লেখ্য আছে। স্বৈরাচার জিয়াউর রহমান রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসার পর আমাকে ৩ বার জেল হাজতে পাঠিয়ে নির্যাতন করা হয়। এরশাদ স্বৈর:শাসনের বিরুদ্ধে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আন্দোলন ও সংগ্রাম করায় MLR মামলা সহ দুইবার জেল হাজতে করা বরণ করি। ১৯৭৬ সালে তৎকালীন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতা বর্তমান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জনাব ওবায়দুল কাদের সারাদেশে নিপীড়িত কর্মীদের খোঁজখবর নিতে গিয়ে দেবীগঞ্জে এসে তিনি আমাকে খুঁজে বের করেন আমি সহ কর্মীদের খোঁজখবর নেন এবং দলের প্রতি আস্থাশীল থাকার পরামর্শ দেন। ১৯৮০ সালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কবর জিয়ারতের উদ্দেশ্যে দেবীগঞ্জ থেকে টুঙ্গিপাড়া যাত্রা করি এবং টুঙ্গিপাড়ার বন্নী ইউনিয়নের তৎকালীন চেয়ারম্যান এবং বীর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ফায়েক আলী সহ কবর জিয়ারত করি। ১৯৯০ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হই এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে দলকে সুসংগঠিত করি। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারী কর্ণেল “ফ্রিডম পার্টি” গঠন করে প্রচারণার উদ্দেশ্যে দেবীগঞ্জ বাজারে বক্তৃতা দেওয়ার সময় গর্ব করে বলে যে, “আমি শেখ মুজিবকে ও তার পরিবারকে হত্যা করেছি” একথা শুনে আমি সহ কয়েকজনের রক্ত টগবগিয়ে উঠে এবং খুনি কর্ণেল রশিদের অস্ত্রকে তোয়াক্কা না করে আমার নেতৃত্বে শ্লোগান দিতে থাকি এবং তাকে দেবীগঞ্জ থেকে বিতারিত করি। ২০০৯ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বীর চেয়ে ৩৩ হাজার বেশি ভোটে জয়লাভ করে দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করি। ২০১৯ সালে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়লাভ করে ৩য় বারের মত বর্তমানে দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করিতেছি। কখনো অন্য কোন দল করি নাই বর্তমানে উপজেলা আওয়ামী লীগের একজন সক্রীয় ০১ নম্বর সদস্য হিসেবে কাজ করিতেছি। আমার সহধর্মিনী মোছাঃ রওশন আরা বেগম দীর্ঘ ৩০ বছরের অধিক দেবীগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করে।

আমাকে আগামী দ্বাদশ মহান জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পঞ্চগড়-২ (দেবীগঞ্জ-বোদা) নির্বাচনী এলাকায় মনোনয়ন প্রদান করলে সর্বসাধারণ মানুষের ভরসায় ইনশাআল্লাহ আমি অবশ্যই নৌকা মার্কা বিজয় ছিনিয়ে এনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আসনটি উপহার দিতে পারবো বলে বিশ্বাস করি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »