1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
পাকিস্তানে পুলিশকে লক্ষ্য করে মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৩২ - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সকাল ৬:১৫ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
স্বতন্ত্র সাংসদ ওয়াহেদের বেপরোয়া আট খলিফা চৌদ্দগ্রামে পুকুরের মালিকানা নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলা ঋণ খেলাপী রতন চন্দ্রকে কালবের পরিচালক পদ থেকে অপসারন দাবি নীরব ঘাতক নীরব লালমাই অবৈধভাবে ফসলি জমির মাটি নিউজ করতে গিয়ে হুমকি, থানায় জিডি বিশ্বনাথের পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে সাত কাউন্সিলরের পাহাড়সম অভিযোগ বিশ্বনাথে ১১ চেয়ারম্যান প্রার্থী’সহ ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল মুখে ভারতীয় পণ্য বয়কট, অথচ ভারতেই বাংলাদেশি পর্যটকের হিড়িক শার্শায় সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের উপর হামলা গণপূর্ত অধিদপ্তরের মহা দূর্নীতিবাজ ডিপ্লোমা মাহাবুব আবার ঢাকা মেট্রো ডিভিশনে!
পাকিস্তানে পুলিশকে লক্ষ্য করে মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৩২

পাকিস্তানে পুলিশকে লক্ষ্য করে মসজিদে হামলায় নিহত বেড়ে ৩২

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ

পাকিস্তানের পেশাওয়ারে পুলিশ লাইন্স এলাকার একটি মসজিদে আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩২ জনে। সোমবার স্থানীয় কর্মকর্তারা জিও নিউজকে এই তথ্য জানিয়েছে। তারা বলেছেন, বিস্ফোরণে আহতের সংখ্যা ১৪৭ জন। এটি দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শহরটিতে পুলিশকে লক্ষ্য করে চালানোর সর্বশেষ হামলার ঘটনা।

নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের মতে, মসজিদে জোহরের নামাজের সামনের সারিতে ছিল আত্মঘাতী হামলাকারী। হামলাকারী নিজেকে বিস্ফোরিত করলে জোহরের নামাজে উপস্থিত হওয়া শতাধিক মুসল্লি আহত হন। পাকিস্তানে নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠন তেহরিক-ই-তালেবান পাকিস্তান (টিটিপি) এই হামলার দায় স্বীকার করেছে।

হাসপাতালের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, অন্তত ১৪৭ জন আহত। এদের অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

প্রধানমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ এই বিস্ফোরণকে আত্মঘাতী হামলা হিসেবে উল্লেখ করেছেন। পুলিশ কর্মকর্তা সিকান্দার খান বলেছেন, বিস্ফোরণের সময় মসজিদে ২৬০ মুসল্লি ছিলেন।

পুলিশ জানিয়েছে, মসজিদটির ইমাম সাহিবজাদা নুর উল আমিনও বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন।

সরকারি সূত্র জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ পেশাওয়ার যাবেন।

হামলায় আহতদের লেডি রিডিং হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ স্থানীয়দের রক্তদানের জন্য আহ্বান জানিয়েছে।

পেশাওয়ারের ক্যাপিটাল সিটি পুলিশ কর্মকর্তা এজাজ খান সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, এখনও অনেক পুলিশ সদস্য ধ্বংসস্তূপে আটকা পড়েছেন। নির্দিষ্ট করে কিছু বলার মতো সময় এখনও আসেনি।

তিনি বলেন, আমরা এখন উদ্ধার অভিযানে মনোযোগ দিচ্ছি। মসজিদের ভেতরে আর কোনও বিস্ফোরক নেই বলে নিশ্চিত করে আমরা বলতে পারছি না।

তিনি আরও বলেন, জোহরের সময় প্রায় ৩০০-৪০০ পুলিশ সদস্য মসজিদে নামাজ পড়েন। পুলিশ লাইন্সের ভেতরে মসজিদে এমন বিস্ফোরণে নিরাপত্তা গলদ ছিল। কিন্তু শুধু তদন্তেই এই বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

খাইবার পাখতুনখাওয়ার তত্ত্বাবধায়ক মুখ্যমন্ত্রী মুহাম্মদ আজম খান পেশাওয়ারের সব হাসপাতালে জরুরি চিকিৎসা পরিস্থিতি জারি করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »