1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
প্রতিষেধকের অভাবে সেলিম মাদবরের মৃত্যু - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২২শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । বিকাল ৪:২৪ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
বটিয়াঘাটার মাখঝানুল উলুম নুরানী ও মহিলা মাদ্রাসার সুপারের বিরুদ্ধে অনৈতিক কর্মকান্ডের প্রতিবাদ করায় চাকরিচ্যুত হলো এক শিক্ষিকা  বিএমইটির ১১ স্মার্ট কার্ড জালিয়াতি: বিদেশ যেতে না পেরে দুর্ভোগে কর্মীরা কেরানীগঞ্জ প্রেসক্লাবে সভাপতি আব্দুল গনী সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৪৪ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গমাতা সাংস্কৃতিক জোটের আলোচনা সভা ও দোয়া অনুষ্টিত মাদারীপুরে প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা দুই সহকারী সমাজসেবা অফিসারের পকেটে যমুনা লাইফের গ্রাহক প্রতারণায় ‘জড়িতরা’ কে কোথায় মেয়র বলে কথা: একাধিক পত্রিকায় পৌরসভার দুর্নীতি ও ভূমিদুস্যতার সংবাদ প্রকাশিত হলেও নিরব প্রশাসন বাংলাদেশে উদ্বোধন হলো টাটা মটরস-এর ‘টাটা যোদ্ধা ঔষধ প্রশাসনের দুর্নীতিবাজ কর্মকর্তাদের প্রত্যাক্ষ মদদে ইউনানী, আয়ুর্বেদিক কোম্পানির প্রাণঘাতী ঔষধে বাজার সয়লাব স্নাতকের মেধা তালিকায় তৃতীয় স্থানে অবন্তীকা
প্রতিষেধকের অভাবে সেলিম মাদবরের মৃত্যু

প্রতিষেধকের অভাবে সেলিম মাদবরের মৃত্যু

আজিজুর রহমান বাবু, শরীয়তপুর প্রতিনিধি:

রাসেল ভাইপার একটি বিষধর সাপ। যার কামড়ে সুচিকিৎসা না পেলে রোগীর মৃত্যু অবধারিত। এই সাপের কামড়ের পরবর্তী ১০০ মিনিটের মধ্যে ” এন্টি ভেনাম ” ইনজেকশনটি প্রয়োগ করলে রোগীর জীবন রক্ষা সম্ভব হতে পারে।

এখন কথা হচ্ছে – এই ইনজেকশনটি নেই কেন ? এমন গুরুত্বপূর্ণ ইনজেকশনের ঘাটতি কেন হবে ? কারা নজরদারি করবেন ? তাঁদের কী কোন দায় নেই ? যদিও সরকারী হাসপাতাল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পাওয়ার কথা ছিল কিন্তু শরীয়তপুর জেলার কোথাও এন্টিভেনাম ইনজেকশনটি পাওয়া গেলো না ।

যে পরিবার থেকে তাঁদের প্রিয় মানুষটি এভাবে চলে যায়, একমাত্র তাঁরা ই উপলব্ধি করতে পারবেন… শূন্যতা কী? সারাজীবনের অর্জিত সম্পদ শেষ বয়সে স্ত্রী পুত্র কন্যা নিয়ে উপভোগ করবেন, কত সাধ আহলাদ ছিল মনে – সব যেনো গুড়েবালি, তা আর হলো না।

সম্প্রতি সখিপুর বাজারে প্রতিষ্ঠিত ফার্নিচার ব্যবসায়ী হাসোজ্জ্বল সেলিম মাদবর সকালে বিষধর সাপ রাসেল ভাইপার কতৃক সংক্রামিত হন। জীবনের কোন মূল্য নেই। একটা ইনজেকশনের অভাবে – জীবন সবশেষ !

সময়মত একটা ইনজেকশন দিতে পারলে এমন পরিস্থিতি তৈরি হতো না। সেলিম মাদবরের পুরো শরীরে সাপের বিষ এমন ভাবে ছড়িয়ে পড়তো না।

ভেদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এন্টি ভেনাম ইনজেকশনটি থাকার কথা। দুঃখের বিষয় সেখানেও ছিল না। ইনজেকশন প্রাপ্তির সঠিক তথ্য না থাকায় খুব বেশী সময় অতিবাহিত হয়ে যায়। মাত্র ১৫ দিনের ব্যবধানে দুটি তরতাজা প্রাণ হারিয়ে গেলো।

গুরুত্বপূর্ণ এই ইনজেকশনটি সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা আগাম সংরক্ষিত করে রাখলে হয়ত বেঁচে যেতে পারতেন প্রয়াত সেলিম মাদবর ।

উক্ত পরিবারের প্রতি আন্তরিক ভাবে সমবেদনা প্রকাশ করছি।

আমাদের প্রত্যাশা – যথাযথ কর্তৃপক্ষ দ্রুত এন্টি ভেনাম ইনজেকশন টি সংরক্ষণ করে, আগামীতে যেনো কোন সাপেকাটা রোগীদের প্রাণ না যায়। জীবন রক্ষার্থে জরুরী ভাবে ব্যবস্হা গ্রহণ করবেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »