1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
বনের জমি দখল করে নির্মাণ কাজ! কর্মকর্তারা বলছে মানছেনা বাঁধা - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সকাল ৯:৪৩ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
শার্শায় মিটার ‘রিডিং’ না দেখেই অফিসে বসে করা হচ্ছে বিদ্যুৎ বিল,গ্রাহকদের মাঝে ক্ষোভ বাংলাদেশ সংবাদপত্র শিল্প পরিষদের ৮ম সভা অনুষ্ঠিত: সংবাদপত্র শিল্প টিকিয়ে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর  সহযোগিতা কামনা ভেজাল কোম্পানীর ভেজাল বাণিজ্যে স্বাস্থ্যসেবায় হুমকি  পত্রিকার প্যাডে সুইসাইড নোটসহ নদীতে মিলল যুবকের অর্ধগলিত লাশ ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান জমি দখল করতে না পারায় ইমরান কর্তৃক খালেদ আল মামুনের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার  প্রবেশন সুবিধা পেল জবি শিক্ষার্থী তিথি কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের হিসাব রক্ষক শত কোটি টাকা অবৈধ সম্পদ অর্জনে, দুদকে অভিযোগ লেগুনা ড্রাইভার সোহেল ৩ থানায় গড়ে তুলেছে বিশাল এক সন্ত্রাসী বাহিনী যশোরে শীর্ষ সন্ত্রাসী জনপ্রতিনিধি দ্বারা খুন-১ আহত-১
বনের জমি দখল করে নির্মাণ কাজ! কর্মকর্তারা বলছে মানছেনা বাঁধা

বনের জমি দখল করে নির্মাণ কাজ! কর্মকর্তারা বলছে মানছেনা বাঁধা

 

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ

পরিবেশের এই বিপন্নতা নিয়ে বন বিভাগ একেবারেই উদাসীন। বনজমি দখলদারদের বিরুদ্ধে বন বিভাগ জিরো টলারেন্স থাকার ঘোষনা দিলেও মাঠপর্যায়ে এ ঘোষনা তেমন কার্যকর হচ্ছে না। বনকর্তাদের গুটিকয়েক ভূমিদস্যুদের সাথে আতাত করায় বনজমি দখলের হিড়িক আগের চেয়ে দ্বিগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে স্থানীয় সচেতন মহলের অভিযোগ। চিহ্নিত এই বনভূমি দখলবাজরা ভবন নির্মাণ করে ভাড়া দিলেও সংশ্লিষ্ট বনকর্তারা তাদের আইন প্রয়োগে রহস্যজনক ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে।

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার সাতখামাইড়,বলদীঘাট,শিমলাপাড়া বিটে বনের জমি দখল করে পাকা ঘরবাড়ি নির্মাণের প্রতিযোগিতা চলছে।

কাওরাইদ ইউনিয়ন,মাওনা ইউনিয়ন,রাজাবাড়ি প্রহলাদপুর ইউনিয়ন ও তেলিহাটি ইউনিয়ন এলাকাবাসীর সূত্রে জানা গেছে বনের সংরক্ষিত গেজেট ভুক্ত প্রায় হাজার বিঘা জমি এলাকার একটি প্রভাবশালী মহল ও স্থানীয় কতিপয় দালাল তদবির কারকদের প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় বনের জমি দিনে রাতে বন কর্মকর্তাদের মেনেজ করে দখল প্রতিযোগিতায় মাঠে নেমেছে ওই অসাধু মহলটি।

এদিকে কেউ কেউ আবার শুধু দখলের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নয়, জমি দখল করে নিজের কব্জায় রেখে পজিশন বিক্রির হিড়িক পড়েছে এই ইউনিয়ন গুলোতে। এর ফলে কেউ আঙ্গুল ফুলে হচ্ছে কলা গাছ। আবার অন্যদিকে হারিয়ে যাচ্ছে ঐতিহ্যবাহী বনাঞ্চল।

সরজমিনে দেখা যায় শ্রীপুর উপজেলা রেঞ্জ এর আওতাধীন কাওরাইদ বিটের বিধায় আবদার এলাকায় বনবিভাগের জায়গায় নতুন একটি গবাদিপশু পালন করার বিশাল খামার নির্মাণের কাজ চলছে,বন বিভাগের কর্মকর্তারা নির্মাণ কাজে বাঁধা দিয়ে আশার পরও কাজ চলমান পাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মৃত রুস্তম আলীর ছেলে আতাউর রহমান আতা গংরা এই গবাদিপশুর খামারের নির্মাণ কাজ করছেন। তারা বলেন আমরা আমাদের জায়গায় ঘর নির্মাণ করছি,আমাদের সকল জমির কাগজপত্র ঠিক আছে, তবে আমাদের কিছু জায়গায় গেজেট থাকায় বনবিভাগের লোকজন এসেছিলো,তারা কাগজপত্র নিয়ে যেতে বলেছে।

স্থানীয় বিধায় আবদার গ্রামের একজন বাসিন্দা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ব্যক্তি জানান এখানে ২৬০৯ দাগে বনের গেজেট রয়েছে, যার জন্য কিছু দিন ধরে বলদীঘাট বিট সহ শ্রীপুর রেঞ্জ এর লোকজন এখানে এসেছে, শুনছি তারা বাঁধা দিয়ে গেছে কিন্তু এখান থেকে তারা চলে যাওয়ার পরপরই আবারও কাজ চলমান হয়ে পরে।

এ বিষয়ে কাওরাইদ বিটের অফিসার বনি শাহাদাত হোসেন বলেন ২৬০৯ দাগে আমাদের বনের গেজেট রয়েছে, আমরা কয়েকবার তাদের কাজে বাঁধা দিয়ে আসছি,তারপরও যদি কাজ করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শ্রীপুর রেঞ্জ এর কর্মকর্তা মোখলেছুর রহমানকে মোবাইল নাম্বারে কল দিলে তিনি কল রিসিভ করেন নি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »