1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক কর্তৃক দুই কিশোর বলৎকারের শিকার - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৬শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সকাল ৯:০০ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
শার্শায় মিটার ‘রিডিং’ না দেখেই অফিসে বসে করা হচ্ছে বিদ্যুৎ বিল,গ্রাহকদের মাঝে ক্ষোভ বাংলাদেশ সংবাদপত্র শিল্প পরিষদের ৮ম সভা অনুষ্ঠিত: সংবাদপত্র শিল্প টিকিয়ে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর  সহযোগিতা কামনা ভেজাল কোম্পানীর ভেজাল বাণিজ্যে স্বাস্থ্যসেবায় হুমকি  পত্রিকার প্যাডে সুইসাইড নোটসহ নদীতে মিলল যুবকের অর্ধগলিত লাশ ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান জমি দখল করতে না পারায় ইমরান কর্তৃক খালেদ আল মামুনের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার  প্রবেশন সুবিধা পেল জবি শিক্ষার্থী তিথি কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের হিসাব রক্ষক শত কোটি টাকা অবৈধ সম্পদ অর্জনে, দুদকে অভিযোগ লেগুনা ড্রাইভার সোহেল ৩ থানায় গড়ে তুলেছে বিশাল এক সন্ত্রাসী বাহিনী যশোরে শীর্ষ সন্ত্রাসী জনপ্রতিনিধি দ্বারা খুন-১ আহত-১
মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক কর্তৃক দুই কিশোর বলৎকারের শিকার

মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক কর্তৃক দুই কিশোর বলৎকারের শিকার

স্টাফ রিপোর্টার :

রাজধানী মোহাম্মদপুর থানার ঢাকা উদ্যান এলাকার সি ব্লক ০২ নং রোডের জামিয়া ইসলামিয়া নুরুল কোরআন মাদ্রাসা ও মসজিদ এর দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে নাজেরা বিভাগের ২ কিশোরকে জোরপূর্বক বলৎকারের (ধর্ষন)অভিযোগে মোঃপুর থানায় মামলা।

মামলার অভিযোগে উল্লেখ্য মাদ্রাসার অন্যান্য শিক্ষার্থীর ঘুমিয়ে পরার পর ১) হাফেজ মাওলানা আবু বক্কর(৩৫)শিক্ষক সর্বশেষ বিগত ১৬/১১/ ২৩ তারিখ রাতে নাজেরা বিভাগের শিক্ষার্থী সিয়াম(১২)কে ও ২) হাফেজ মোঃসালাউদ্দিন প্রিন্সিপাল সর্বশেষ২১/১১/২৩ইং তারিখে উক্ত মাদ্রাসার নাজেরা বিভাগের শিক্ষার্থী ফজলে রাব্বি(১২) কে সিসি ক্যামেরার আড়ালে মাদ্রাসার দ্বীতিয় তলার একটি রুমে জোর পূর্বক বলৎকার(ধর্ষন) করে উক্ত বিষয়ে শিশুরা কাউকে জানালে প্রান নাশের হুমকি দেয় মাদ্রাসা শিক্ষকরা ।
মাদ্রাসা থেকে ছুটি পেয়ে সিয়াম বিষয়টি তার বাবার (সুমন) কাছে বললে তিনি মইনুল ইসলামের সাথে আলোচনা করলে তিনি ও জানান তার ছেলে ও একই ঘটনার শিকার হয়েছে প্রিন্সিপাল থেকে। উভয়ে মিলে একটি অভিযোগ করে মোঃ পুর থানায়। কিন্তু ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগ পুলিশের গাফিলতির কারনে আসামিরা পালিয়ে যাওয়ার
সুযোগে পেয়েছে।

এ বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হওয়ায় এলাকাবাসী মধ্যে তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ আরাম্ভ হয়। গত কাল শনিবার এলাকাবাসী
সম্মিলিত হয়ে মানব বন্ধন করেছে। মানব বন্ধনে
এলাকা বাসির দাবি ছিলো মাদ্রাসা প্রিন্সিপাল
মো: সালাউদ্দীন ও সহকারী শিক্ষক আবু বক্কর কে গ্রেফতার করে দ্রুত বিচারের আওতায় এনে
ন্যায় বিচার নিশ্চিতে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের আইনানুগ সহযোগিতা ও দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবি জানায়। যাতে করে আর কোন বাবা মায়ের সন্তান এমন বলৎকারের শিকার না হয়। স্বাধীন ও নিরাপদ ভাবে শিশু কিশোররা ধর্মিয় শিক্ষা অর্জন করতে পরে।
এ বিষয়ে আলেম সমাজের উপর কলঙ্ক আসায়
মাদ্রাসার কয়েকজন শিক্ষক এই মানববন্ধনে অংশ নিয়ে এর তিব্র নিন্দা ও ন্যায় বিচার দাবি করে মানববন্ধনের সার্থকতা রক্ষায় বীরদর্পে মানবিক ভূমিকা পালন করে। এমন বলৎকারের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবি জানায়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »