1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
লাকসামে চাঁদাবাজদের কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে কাউন্সিলর এর বাড়িতে জনতার হামলা - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৯শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । রাত ৮:১৩ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
গণপূর্তের ইএম কারখানা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী ইউসুফের ভুয়া বিল ও কমিশন বাণিজ্য কার বলে বলিয়ান এলজিইডির বাবু নারায়ণগঞ্জ আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে আনসার এবং দালালদের চলছে প্রকাশ্যে ঘুষ বাণিজ্য  বেনাপোল কাস্টমস কর্মকর্তা এসি নুরের অবাধ ঘুষ বাণিজ্য গুচ্ছের পছন্দক্রমে সর্বোচ্চ আবেদন জবিতে টঙ্গীর মাদক সম্রাজ্ঞী আরফিনার বিলাসবহুল বাড়ী-গাড়ী রেখে থাকেন বস্তিতে! শরীয়তপুরে কিশোরীকে অপহরণের পর গনধর্ষণ বেনাপোল কাস্টমসে ফুলমিয়া নাজমুল সিন্ডিকেটের ডিএম ফাইলে অবাধ ঘুষ বাণিজ্য নারীঘটিত কারন দেখিয়ে জবির ইমামকে অব্যাহতি, শিক্ষার্থীরা বলছে সাজানো নাটক মিটফোর্ডের জিনসিন জামান এখন ইমপেক্স ল্যাবরেটরীজ (আয়) এর গর্বিত মালিক
লাকসামে চাঁদাবাজদের কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে কাউন্সিলর এর বাড়িতে জনতার হামলা

লাকসামে চাঁদাবাজদের কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে কাউন্সিলর এর বাড়িতে জনতার হামলা

স্টাফ রিপোর্টার:

চাঁদাবাজ , সন্ত্রাসী ও মাদক সেবীদের কর্মকাণ্ডে অতিষ্ঠ হয়ে কুমিল্লা জেলার লাকসাম পৌরসভার কাউন্সিলর এর কার্যালয় ও বাসায় হামলা করেছে সাধারণ মানুষ।
১০ জানুয়ারি ২০২৪ দুপুর ১২ টার দিকে রাজঘাট ও পশ্চিমগাঁও এলাকার ভুক্তভোগী ও সাধারণ মানুষ চাঁদাবাজ ও মাদক-সেবীদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে গডফাদার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবু ছায়েদ বাচ্চুর বাড়ী ও অফিসে হামলা করে।
ঘটনার সময় জাফর নামে বাচ্চুর এক সমর্থক গুরুত্ব আহত হয়ে এখন লাকসাম সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
এঘটনায় পশ্চিম গাঁও এলাকায় আতঙ্ক ও ভীতিকর অবস্থা সৃষ্টি হয়।
লাকসাম থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।
জানা গেছে, পৌরসভার ৬নং ওয়ার্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহ-সভাপতি কমিশনারের কতিথ ভাইপো রাসেল সহ টর্চার সেলের সদস্যদের অত্যাচার, চাঁদাবজীতে ৬নং ওয়ার্ডের সাধারণ মানুষ ও ব্যাবসায়ীরা অতিষ্ঠ।
সম্প্রতি তারা পার্শ্ববর্তী ৫ ওয়ার্ড কাউন্সিলর মুনসুর আহমদ মুন্সীর এলাকায়ও চাদাবাজী শুরু করে। বিষয়টি কাউন্সির বাচ্চুকে জানানো হলেও পরিত্রানের বদলে চাঁদাবাজদের অত্যাচারের মাত্রা আরো বৃদ্ধি পায়।

এই ধরনের অভিযোগ শুধু রাজঘাট ও পশ্চিমগাঁও এলাকায় সীমাবদ্ধ নয়। ৬নং ওয়ার্ডের প্রতিটি মহল্লায় বিরাজমান।
কমিশনার বাচ্চু বাপের রেখে অগাদ সম্পদের মালিক বলে জাহির করে নিজকে চাঁদামুক্ত কমিশনার প্রচার করলেও তার ওয়ার্ডে প্রতিটি মহল্লায় কয়েক ডজন স্বঘোষিত চাঁদাবাজ কাউন্সিল আছে। যারা নিজেদেরকে ভাইয়ের লোক পরিচয় দিয়ে মাদক ও চাঁদাবাজির রমরমা বানিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে।

১০জানুয়ারি দুপুরের অনাকাঙ্খিত ঘটনায় উপজেলা আওয়ামী লীগ ও থানা প্রশাসন বিব্রত। যাতে মন্ত্রী মোঃতাজুল ইসলামের ভাবমূর্তি ও সুনামও জড়িত।

এই ব্যাপারে থানা প্রশাসন কমিশনারের নীরবতার জন্য ভৎসনা করেন। তাৎক্ষণিকভাবে চাঁদাবাজির দায়ে বহিষ্কার করা হয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা রাসলকে। এলাকাবাসীর মতে,
৬নং ওয়ার্ডে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় এধরণের আরো একডজন রাসেল ও ভাইয়ের লোককে সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা দরকার।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »