1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
লাশঘরে রাখা নারীর লাশের সাথে যৌনাচার-পাহারাদার আটক! - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । ভোর ৫:৪১ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
স্বতন্ত্র সাংসদ ওয়াহেদের বেপরোয়া আট খলিফা চৌদ্দগ্রামে পুকুরের মালিকানা নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলা ঋণ খেলাপী রতন চন্দ্রকে কালবের পরিচালক পদ থেকে অপসারন দাবি নীরব ঘাতক নীরব লালমাই অবৈধভাবে ফসলি জমির মাটি নিউজ করতে গিয়ে হুমকি, থানায় জিডি বিশ্বনাথের পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে সাত কাউন্সিলরের পাহাড়সম অভিযোগ বিশ্বনাথে ১১ চেয়ারম্যান প্রার্থী’সহ ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল মুখে ভারতীয় পণ্য বয়কট, অথচ ভারতেই বাংলাদেশি পর্যটকের হিড়িক শার্শায় সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের উপর হামলা গণপূর্ত অধিদপ্তরের মহা দূর্নীতিবাজ ডিপ্লোমা মাহাবুব আবার ঢাকা মেট্রো ডিভিশনে!
লাশঘরে রাখা নারীর লাশের সাথে যৌনাচার-পাহারাদার আটক!

লাশঘরে রাখা নারীর লাশের সাথে যৌনাচার-পাহারাদার আটক!

রায়হান হোসাইন, চট্টগ্রামঃ-১

২ বছরের এক কিশোরী ও ৩২ বছরের এক নারী আত্মহত্যার চেষ্টা করেন ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি ও এপ্রিল মাসে। ওই সময় তাদের উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। নিয়ম অনুযায়ী জরুরি বিভাগ থেকে পাশের লাশ ঘর হয়ে চমেকের মর্গে যায় মৃতদেহগুলো। লাশগুলোর সুরতহাল প্রতিবেদনে জোর জবরদস্তি কিংবা ধর্ষণের আলামত না মিললেও ময়নাতদন্ত প্রতিবেদনের জন্য সিআইডির ল্যাবরেটরিতে চিকিৎসকের পাঠানো দুই মরদেহে ‘হাই ভ্যাজাইনাল সোয়াব (এইচভিএস) ’ পাওয়া গেল একই পুরুষের শুক্রাণুর উপস্থিতি।

দুই মাসের ব্যবধানে দুটি অপমৃত্যুর ঘটনায় দুই নারীর দেহে একই পুরুষের শুক্রাণুর উপস্থিতির ঘটনায় বিষ্মিত হয় সিআইডি। সিনিয়র কর্মকর্তাদের নির্দেশে এ ঘটনার অনুসন্ধানে নামেন সিআইডি চট্টগ্রাম অঞ্চলের এসআই কৃঞ্চ কমল ভৌমিক। তিনি দীর্ঘ অনুসন্ধান শেষে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ি সংলগ্ন লাশ ঘরের অস্থায়ীভিত্তিতে নিয়োজিত দারোয়ান সেলিমকে (৪৮) শনাক্ত করেন। পরে সোমবার সকালে সেলিমকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নারীর মরদেহের সাথে বিকৃত যৌনাচার করার কথা স্বীকার করে এ লাশ পাহারাদার। এ ঘটনায় সেলিমের বিরুদ্ধে পাঁচলাইশ থানায় সিআইডির এসআই কৃঞ্চ কমল ভৌমিক একটি মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তার সেলিম (৪৮) কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার সাতেশ্বর গ্রামের বাসিন্দা বর্তমানে চান্দগাঁও থানার বহদ্দারহাট ঘাসিয়াপাড়ার ভাড়া বাসায় থাকেন। তার বিরুদ্ধে এর আগেও পাঁচলাইশ থানায় নারী নির্যাতন মামলা ছিল।

পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) চট্টগ্রাম অঞ্চলের বিশেষ পুলিশ সুপার মুহাম্মদ শাহনেওয়াজ খালেদ বলেন, ‘গত বছরের ৭ ফেব্রুয়ারি পাঁচলাইশ থানা এলাকা থেকে ৩২ বছর বয়সী এক নারী ও ২৫ এপ্রিল চান্দগাঁও থানা এলাকা থেকে ১২ বছর বয়সী এক কিশোরীর মরদেহ নিয়ে আসা হয় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের জরুরি বিভাগে। দুটাই আত্মহত্যার চেষ্টার ঘটনা। দুজনকেই হাসপাতালে আনার পর চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। তারপর এসব মরদেহ রাতে চমেক পুলিশ ফাঁড়ির পাশে অবস্থিত লাশ ঘরে রাখা হয়। পরের দিন সেখান থেকে প্রর্বত্তক মোড়স্থ মর্গে নিয়ে ময়না তদন্ত করা হয়।’
তিনি আরও বলেন, ‘লাশগুলোর সুরতহাল প্রতিবেদনে কোনো আঘাতের চিহ্ন কিংবা জোর জবরদস্তি কিংবা ধর্ষণের আলামত না মিললেও ময়না তদন্ত প্রতিবেদনের জন্য সিআইডির ল্যাবরেটরিতে চিকিৎসকের পাঠানো দুই মরদেহে ‘হাই ভ্যাজাইনাল সোয়াব (এইচভিএস) ’পাওয়া গেল একই পুরুষের শুক্রাণুর উপস্থিতি। ঘটনার রহস্য উদঘাটনে নেমে মর্গের ডোম এবং লাশ ঘরের পাহারার দায়িত্বে থাকা বেশ কয়েকজনকে চট্টগ্রাম সিআইডি কার্যালয়ে নিয়ে চা পানের আড়ালে মুখের লালা থেকে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করেন। তাদের মধ্যে লাশ ঘরের পাহারাদার সেলিমের সাথে ওই দুই নারী ও কিশোরীর লাশে পাওয়া শুক্রাণুর মিল পাওয়া যায়। এরপরই সোমবার আমরা লাশ ঘরের পাহাদার সেলিমকে গ্রেপ্তার করি। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি এই বিকৃত যৌনাচারের কথা স্বীকারও করেছেন। এরপরও বিস্তারিত জানতে আমরা তাকে রিমান্ডে নিয়ে আরও জিজ্ঞাসাবা করব।’

পাঁচলাইশ থানার ওসি (তদন্ত) সাদিকুর রহমান বলেন, ‘নারীর মরদেহের সঙ্গে বিকৃত যৌনাচার করার অভিযোগে চমেকের লাশ ঘরের পাহারাদার সেলিমকে সিআইডি গ্রেপ্তার করেছে। তার বিরুদ্ধে পাঁচলাইশ থানায় একটি মামলা দায়েরের পর আসামিকে সিআইডি নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে। মামলাটি তারাই তদন্ত করবে।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »