1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
সখিপুরে ১১ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ জন - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । দুপুর ২:০৩ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
সখিপুরে ১১ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ জন

সখিপুরে ১১ কেজি গাঁজাসহ আটক ২ জন

শাহীন আহমেদভে দরগঞ্জ প্রতিনিধিঃ

শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার সখিপুর থানায় ১১ কেজি গাঁজাসহ মনির হোসেন (৩০) ও নুরে আলম (২০) নামে দুই যুবক কে আটক করেছে সখিপুর থানা পুলিশ। ( ১৫ এপ্রিল )রাত. ১০ টার দিকে এস আই আতিয়ার ও সঙ্গীয় ফোর্সসহ সখিপুর থানা এলাকায় রাত্রি কালিন রনপাহাড়া ও মাদকদ্রব্য উদ্ধার অভিযান পরিচালনাকালীন সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সখিপুর থানার এস আই আতিয়ার ও সঙ্গীয় ফোর্সসহ
চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা খুলনা যাওয়ার দিদার পরিবহন থেকে সখিপুর থানাধীন ডিএমখালি মোসলমান কান্দি এলাকা হতে তাদের কে আটক করা হয়। আটককৃত ব্যক্তি হলেন কুমিল্লা জেলার ও থানার মধ্য বিজয়পুরের শফিক মিয়ার ছেলে মনির হোসেন (৩০) ও দক্ষিণ কুমিল্লা সদর রাজাপাড়া ( পৌরসভার ১৯ নং ওয়ার্ডের) বজলু রহমানের ছেলে নুরে আলম (২০)

এসময় আটককৃত ব্যক্তিরা জানান, চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা দিদার পরিবহন করে যাচ্ছিল খুলনা শহরে
শরীয়তপুরের ভেদরগঞ্জ উপজেলার ডিএমখালি ইউনিয়নের মোসলমান কান্দিতে আসলে সখিপুর থানা পুলিশ তাদেরকে আটক করে। তাদের কাছ থেকে ১১ কেজি গাজা পাওয়া যায়। যার আনুমানিক বাজার মূল্য ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা.।

এবং সখিপুর থানার একটি মাদকদ্রব্য গাজা ক্রয়- বিক্রয় আইন ২০১৮. ৩৬(১) টেবিল ১৯(খ)৪১ মামলা রুজু হয়। এবং সখিপুর থানার মামলা নং- ১৭,
১৫/০৪/২০২৩ইং

সখিপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান হাওলাদার দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ কে জানান, গোপন সংবাদ আসে চট্টগ্রাম থেকে দিদার পরিবহন করে কিছু
গাজা যাবে খুলনাতে সখিপুর থানা হয়ে। সেই সংবাদ এর ভিত্তিতে সখিপুর থানাধীন ডিএমখালি মোসলমান কান্দিতে দিদার পরিবহন টি আসলে বাসটি থামানোর ইসারা করলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামিরা
নেমে পালানোর চেষ্টা করলে, এস আই আতিয়ার ও সঙ্গীয় ফোর্সসহ তাদের দুই জন কে আটক করে, এবং তাদের কাছ থেকে ১টি ব্যাগে ৬ টি প্যাকেটে ১১ কেজি গাজা পাওয়া যায়, যার আনুমানিক বাজার মূল্য ২ লক্ষ ২০ হাজার টাকা। আটককৃত ব্যক্তিরা দীর্ঘ দিন ধরে মাদকব্যবসা করে আসছিলো। তিনি আরও জানান, তাদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়েরের করে। এবং সখিপুর থানার মামলা নং -১৭ এবং ৩৬(১)টেবিল ১৯(খ)ধারায় অপরাধ করিয়াছে, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১৮ পস্তুুত করে আদালতে সোপার্দ করা হয়েছে তবে আমাদের এধরনের মাদক কারবারীদের বিরুদ্ধে অভিযান অব্যহত থাকবে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »