1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
হয়রানি মুক্ত ইলেক্ট্রিক ব্যবসা কে সর্বোচ্চ জোর দেয়া হবে - খন্দকার রুহুল আমিন - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । রাত ৮:০৭ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
জমে উঠবে উপজেলা নির্বাচন সাংবাদিক নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন সাংবাদিকতায় আপনার জীবন নিরাপদতো ? সাগর-রুনি হত্যা: তদন্ত প্রতিবেদন পেছাল ১০৮ বার ওয়াসার পিপিআই প্রকল্প লুটপাটের মুলহোতা হাসিবুল হাসান নির্দোষ দাবি করেছেন! ঘরে বসে ইনকাম করতে গিয়ে উল্টো লাখ টাকা হারালেন তরুণ! সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা বি.করিমের বিরুদ্ধে দখলবাজী ও হয়রানির অভিযোগ মানিকনগরে সমাজ কল্যাণ সোসাইটি উদ্যোগে মতবিনিময় সভা অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন কর্তৃক ‘মহান শহিদ দিবস’ ও ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ পালন পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ থানার সন্ধ্যা নদীর ভাংগন ঠেকানো যাচ্ছে না ইট ভাটার কারনে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশের পর সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু হেনা মোস্তাফার বদলি
হয়রানি মুক্ত ইলেক্ট্রিক ব্যবসা কে সর্বোচ্চ জোর দেয়া হবে ——- খন্দকার রুহুল আমিন

হয়রানি মুক্ত ইলেক্ট্রিক ব্যবসা কে সর্বোচ্চ জোর দেয়া হবে ——- খন্দকার রুহুল আমিন

রিমি সরদারঃ
আসন্ন বিইএ ( বাংলাদেশ ইলেক্ট্রিক এসোসিয়েশন) নির্বাচন কে ঘিরে সারা দেশে চলছে ব্যাপক আয়োজন। মহা জোটের পক্ষ থেকে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী খন্দকার রুহুল আমিন বলেন, তিনি এবং তার দল এর প্রথম এবং প্রধান দায়িত্ব হবে, ইলেক্ট্রিক ব্যবসাকে হয়রানি মুক্ত করা। নানা খাতে দোকানদারদের হয়রানি হতে হয়। এই সময়ে সমমনা চারটি সংগঠন কে এক ব্যানারে এনে নির্বাচন করাটাই সবচেয়ে বড় স্বার্থকতা। চারটি সেক্টর নিয়ে এই বিশাল ইলেক্ট্রিক এসোসিয়েশন গঠিত। বাংলাদেশের অন্যতম সবচেয়ে বড় সংগঠন এটি। কিন্তু করোনা কালীন ক্রান্তিলগ্নে ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ীগণ অত্যন্ত ক্ষতিগ্রস্থ। অন্যান্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির দোকান খোলা থাকলেও এই সেক্টরের সাথে সংশ্লিষ্ট সব কিছুই প্রায় দুই বছর বন্ধ ছিলো। আবার সরকারের পক্ষ থেকে কোন রকম প্রনোদনাও পাননি। তাই ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ী দের কে আবার সচল করতে এবং ইলেক্ট্রিক ব্যবসাকে আবার নিজস্ব গতিতে ফিরিয়ে আনতে তারা সরকারের কাছে কিস্তি ভিত্তিক ঋণ প্রস্তাবের বিষয় টি কেও প্রাধান্য দিচ্ছেন। এতে সরকার এবং ব্যবসায়ী উভয় পক্ষই উপকৃত হবে। কারণ, প্রায় পাঁচ লক্ষ ব্যবসায়ী আছেন পুরো দেশ জুড়ে। শুধু ব্যবসায়ী নয়, এই ব্যবসার সাথে জড়িয়ে আছে আরো নানা পেশার মানুষ। করোনা কালীন সময়ে তারা নিজ দায়িত্বে যতটা সম্ভব মহামারীর মোকাবিলা করেছেন। তবে দেশের অর্থনীতির বৃহত্তর স্বার্থে সরকারের সহায়তার বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ করতে মহাজোটের কোন বিকল্প নেই-এমনটা ই মনে করেন খন্দকার রুহুল আমিন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »