1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
নির্বাচন থেকে সরে গেলেন যশোর-১আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম লিটন - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সকাল ৮:০৩ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
গণপূর্ত অধিদপ্তরের মহা দূর্নীতিবাজ ডিপ্লোমা মাহাবুব আবার ঢাকা মেট্রো ডিভিশনে! ৫ দিন বন্ধের পর আবার সচল বেনাপোল বন্দর টঙ্গীতে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীর উপর হামলা: তদন্তে গিয়ে সিসিটিভি আবদার করলো পুলিশ! ঋণ খেলাপী রতন চন্দ্রকে কালবের পরিচালক পদ থেকে অপসারন দাবি ডেলিগেটদের খিলক্ষেত এলাকার সাধারণ জনগনের আস্থাভাজন ওসি হুমায়ুন কবির মানিক নগরে জুয়াড় আস্তানা থেকে ১৬ জুয়ারীদের আটক করছে পুলিশ কোরানের পাখিদের নিয়ে চন্দনাইশ প্রেস ক্লাবের ইফতার ও দোয়া মাহফিল চেক জালিয়াতির মামলায় সিএনএন বাংলা টিভির শাহীন আল মামুন গ্রেফতার রমজানেও কালব রিসোর্টে আগষ্টিন-রতন-রোমেলের ভেজাল মদের কারবার! নকলা ইউএনও’র বিরুদ্ধে তথ্য কমিশন কর্তৃক গৃহীত সুপারিশের বিরুদ্ধে গণস্বাক্ষরসহ প্রতিবাদ
নির্বাচন থেকে সরে গেলেন যশোর-১আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম লিটন

নির্বাচন থেকে সরে গেলেন যশোর-১আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম লিটন

বেনাপোল যশোর প্রতিনিধি::

দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন থেকে ৮৫ যশোর-১ শার্শা আসনের ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য প্রার্থী আশরাফুল আলম লিটন নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রভাব বিস্তার, অনিয়ম ও ৫৫টি ভোট কেন্দ্র দখলের অভিযোগে নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে ভোটের মাঠ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

রবিবার (৭ই জানুয়ারি) তিনি সকালে ১১ ঘটিকায় সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দিয়ে জানান, নেতা কর্মী ও ভোটারদের ‘জান-মালের নিরাপত্তার স্বার্থে’ নির্বাচন থেকে সরে গেছেন।

নির্বাচন প্রত্যাখ্যান প্রসঙ্গে স্বতন্ত্র প্রার্থী আশরাফুল আলম লিটন বলেন, আমি বিগত ১০/১২দিন শার্শা উপজেলার নির্বাচনি এলাকার বহু স্থানে ভোটার, সুশীল সমাজ, সাংবাদিক এবং ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মতবিনিময় ও গণসংযোগ করেছি ১৯ ডিসেম্বর আমাকে মারপিট করা হয় এবং এখনো পর্যন্ত আমর ১৫০ জন নেতাকর্মী সমর্থকদের উপর হামলা ও নির্যাতন চালানো হয়েছে। রক্ষা পাইনি আমার মা, স্ত্রী, আত্মীয়-স্বজন এছাড়া আজ আমার ৯জন এজেন্টকে মারপিট করা হয়েছে। অধিকাংশ কেন্দ্রের এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে। ৫৫ টি কেন্দ্র দখল করে নেয়া হয়েছে। এখন যে পরস্থিতি তাতে যে কোন মায়ের বুক খালি হতে পারে। আমি এমন ভোট চাই না।

তিনি আরো বলেন, ওরা প্রমাণিত করতে চাচ্ছে এ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব না। হয়তো ১০ শতাংশ ভোট পড়বে। কিন্তু তারা ৫০ শতাংশ ভোট দেখানোর প্রক্রিয়া চালাচ্ছে। যে কারণে এমন প্রহসনের নির্বাচন থেকে আমি সরে দাঁড়াচ্ছি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »