1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
বুড়িচংয়ে কয়েকটি বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি! নগদ টাকা স্বর্ণালংকার লুট! আতংকে এলাকাবাসী - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৭শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সন্ধ্যা ৬:৩২ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
জনস্বাস্থ্যের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর রয়েল আমলকী প্লাস দুর্দান্ত প্রতাপে বাজারজাত করা হচ্ছে টঙ্গীর মাদক সম্রাজ্ঞী আরফিনার প্রকাশ্যে মাদক ব্যবসা ও অবৈধ সম্পদের পাহাড় টঙ্গীতে মহাসড়ক দখল করে চাঁদাবাজি এ যেনো দেখার কেউ নেই পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে! শার্শায় মিটার ‘রিডিং’ না দেখেই অফিসে বসে করা হচ্ছে বিদ্যুৎ বিল,গ্রাহকদের মাঝে ক্ষোভ বাংলাদেশ সংবাদপত্র শিল্প পরিষদের ৮ম সভা অনুষ্ঠিত: সংবাদপত্র শিল্প টিকিয়ে রাখতে প্রধানমন্ত্রীর  সহযোগিতা কামনা ভেজাল কোম্পানীর ভেজাল বাণিজ্যে স্বাস্থ্যসেবায় হুমকি  পত্রিকার প্যাডে সুইসাইড নোটসহ নদীতে মিলল যুবকের অর্ধগলিত লাশ ঢাকাস্থ ভোলা সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি আহসান কামরুল, সম্পাদক জিয়াউর রহমান জমি দখল করতে না পারায় ইমরান কর্তৃক খালেদ আল মামুনের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অপপ্রচার 
বুড়িচংয়ে কয়েকটি বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি! নগদ টাকা স্বর্ণালংকার লুট! আতংকে এলাকাবাসী

বুড়িচংয়ে কয়েকটি বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি! নগদ টাকা স্বর্ণালংকার লুট! আতংকে এলাকাবাসী

 

বুড়িচং প্রতিনিধি:

কুমিল্লার বুড়িচং উপজেলার খাড়েরা পূর্বপাড়া এলাকায় অবসরপ্রাপ্ত এক সেনাবাহিনীর সদস্যসহ সিএনজি চালকের বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।
ঘটনাটি ঘটে শনিবার গভীর রাতে খাড়েরা পূর্বপাড়ার বাসিন্দা অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্য মোঃ তৈয়ব আলী ও সিএনজি চালক আক্তার হোসেনের বাড়িতে।
সরেজমিনে গিয়ে স্থানীয় ও ভোক্তভোগীর সূত্রে জেনেছে,শনিবার রাত তিনটার সময় ১৫ সদস্যের এক ডাকাত দল প্রথমে সিএনজি চালক আক্তার হোসেনের বাড়ির লোহার গেইট ভেঙে ঘরে প্রবেশ করে স্বামী-স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে মারধর করে নগদ ৪৫ হাজার টাকা ও স্বর্ণ লুট করে। পরে ওই ডাকাত দল আক্তার হোসেনের স্ত্রীকে দিয়ে অবসরপ্রাপ্ত সেনাসদস্যের পরিবারকে ডাক দিয়ে ঘুম ভাঙিয়ে তাদের ঘরে প্রবেশ করে সেনাসদস্য তৈয়ব আলীর হাত-পা বেঁধে ফেলে তারপর স্ত্রী সাবিনা ইয়াছমিন,বিবাহিত মেয়ে পাপিয়া আক্তার ও কুমিল্লা সরকারি মহিলা কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর পড়ুয়া মেয়ে শাহনাজ আক্তার জেরিনকে। তাদের সকলকে হাত-পা বেঁধে মারধর করে প্রচন্ড ভাবে আহত করে নগদ এক লক্ষ টাকা ও ৮ ভরি স্বর্ণ সহ প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র লুট করে নিয়ে যায়। এতে ডাকাত দলের মারধর কারণে সেনাসদস্য তৈয়ব আলীর একটি চোখ নষ্ট হয়ে যায়। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত হয় স্ত্রী সাবিনা ইয়াছমিন,মেয়ে পাপিয়া আক্তার ও শাহনাজ আক্তার। আহত হয় সিএনজি চালক আক্তার হোসেন ও তার স্ত্রী।স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন ইদানিং বুড়িচংয়ে সীমান্ত এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় চুরি,ডাকাতি ও মাটি কাটা বেড়ে গেছে। এইগুলো যদি বন্ধ না হয় অপরাধ দিন দিন আরো বেড়ে যাবে। তাই প্রশাসনের উচিত তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া।

ঘটনার পর পরিদর্শনে যায় বুড়িচং থানার ওসি আবুল হাসানাত খন্দকার ও সঙ্গীয় ফোর্স। বাকশীমূল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল করিম ও ইউপি সদস্য ফয়েজ আহমেদ সহ এলাকার মান্যগণ্য ব্যক্তিবর্গ। এব্যাপারে বুড়িচং থানার ওসি বলেছেন,আমরা ঘটনার খবর শোনে তাদের বাড়িতে গিয়েছি এবং ভোক্তভোগীর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আইনগত প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। বুড়িচং থানা এলাকায় ব্যাপকহারে বৃদ্ধি পেয়েছে এই চুরি ডাকাতির ঘঠনা, প্রশাসন ও জন প্রতিনিধিরা এ বিষয়ে কোন ব্যবস্থাই গ্রহন করছে না এতে করে মানুষ আতংকের মাঝে রাত কাটাচ্ছেন। সচেতন মহল মনে পরে পুলিশের টহল বৃদ্ধি সহ গ্রাম পুলিশের কার্যক্রম সহ চোকিদার নিয়োগ করলেই এই চুর ডাকাতদের হাত থেকে সাধারন মানুষকে নিরাপদ রাখতে পারবেন।

 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »