1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
মধ্য ধরান্দীর সেই বেতন বিহীন প্রধান শিক্ষক শ্রীঘরে - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

২৩শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সকাল ৯:১৮ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশন কর্তৃক ‘মহান শহিদ দিবস’ ও ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ পালন পিরোজপুর জেলার নেছারাবাদ থানার সন্ধ্যা নদীর ভাংগন ঠেকানো যাচ্ছে না ইট ভাটার কারনে দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশের পর সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু হেনা মোস্তাফার বদলি সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সুমন সিংহের বিরুদ্ধে ব্যাপক দূর্ণীতির অভিযোগ তিতাস গ্যাস আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধুর ছবি নিয়ে মিথ্যাচার ইউনিয়ন আ’লীগের পদের বসেই বিপুল অর্থবৃত্তের মালিক জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা’র বুড়িচং উপজেলা কমিটি গঠন রিকশা এমদাদ বাহিনীর তাণ্ডবে অতিষ্ঠ বাড্ডাবাসী, থানায় মামলা আবুল মোল্লার বাড়িতে ভয়াবহ ডাকাতি ! শহর সমাজসেবা কার্যালয়-১,ঢাকা কর্তৃক বাস্তবায়িত কার্যক্রম সমূহ জোরদার করন” শীর্ষক সেমিনার
মধ্য ধরান্দীর সেই বেতন বিহীন প্রধান শিক্ষক শ্রীঘরে

মধ্য ধরান্দীর সেই বেতন বিহীন প্রধান শিক্ষক শ্রীঘরে

পটুয়াখালী সংবাদদাতা:

হত্যা চেষ্টা মামলার প্রধান দুই আসামিকে জামিন নামঞ্জুর করে শ্রীঘরে পাঠিয়েছে পটুয়াখালী সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট প্রথম আমলি আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলাম এর বেঞ্চে এ শুনানি হয়। শুনানিটি পরিচালনা করেন পটুয়াখালী জজকোর্টের সিনিয়ার এডভোকেট আবুল বাসার।
জানা যায় মোঃ শহিদুল ইসলাম মধ্য ধরান্দী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বেতন বিহীন প্রধান শিক্ষক। এবং কালু ধরান্দী ডিগ্রি কলেজের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী। এ দুজন সহ আরো সাতজন রেজাউল করিম ফারুক কে গত ২৫/৮/২০২১ তারিখ কুপিয়ে এবং দেশীয় অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতলে ভর্তি করা হয়। পরের দিন ভিকটিম এর বড় ভাই মোঃ শাহ আলম মিয়া বাদী হয়ে কোর্টে মামলা দায়ের করে।
গতকাল বৃহস্পতিবার দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পরে অত্র মামলার প্রধান আসামি মোঃ শহিদুল ইসলাম এবং কালু কোর্টে হাজির হতে আসে। ভিকটিমের অবস্থা পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে বিজ্ঞ আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে
পাঠানোর ব্যবস্থা করে।
এ ব্যাপারে বাদী মোঃ শাহ আলম মিয়া অভিযোগ করে বলেন “আসামিরা খুবই উদ্ধত পরায়ন এবং ডাকাত প্রকৃতির। শহিদুল এবং কালুর জামিন না মঞ্জুর করার কারণে অন্যান্য আসামিরা যারা ইতোমধ্যেই যাবিনে রয়েছে বিভিন্নভাবে ভয়-ভীতি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। অনেকটা পাগলা কুকুরের মত আচরণ করে যাচ্ছে। খুনের হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। নষ্ট প্রকৃতির এবং চরিত্রহীন মহিলাদের দিয়ে নারী নির্যাতনের মামলার ভয় দেখাচ্ছে”এ ব্যাপারে আসামিদের কাছে জানতে চাইলে তারা কোন ধরনের বক্তব্য দেননি।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »