1. md.zihadrana@gmail.com : admin :
ছিনতাইকালে ডেমরা থানার এসআই মোজাম্মেল হকসহ গ্রেফতার ৪ - দৈনিক সবুজ বাংলাদেশ

১৯শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ । সকাল ৬:২৪ ।। গভঃ রেজিঃ নং- ডিএ-৬৩৪৬ ।।

সংবাদ শিরোনামঃ
স্বতন্ত্র সাংসদ ওয়াহেদের বেপরোয়া আট খলিফা চৌদ্দগ্রামে পুকুরের মালিকানা নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলা ঋণ খেলাপী রতন চন্দ্রকে কালবের পরিচালক পদ থেকে অপসারন দাবি নীরব ঘাতক নীরব লালমাই অবৈধভাবে ফসলি জমির মাটি নিউজ করতে গিয়ে হুমকি, থানায় জিডি বিশ্বনাথের পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে সাত কাউন্সিলরের পাহাড়সম অভিযোগ বিশ্বনাথে ১১ চেয়ারম্যান প্রার্থী’সহ ২০ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল মুখে ভারতীয় পণ্য বয়কট, অথচ ভারতেই বাংলাদেশি পর্যটকের হিড়িক শার্শায় সন্ত্রাস ও মাদকের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশের জেরে সাংবাদিকের উপর হামলা গণপূর্ত অধিদপ্তরের মহা দূর্নীতিবাজ ডিপ্লোমা মাহাবুব আবার ঢাকা মেট্রো ডিভিশনে!
ছিনতাইকালে ডেমরা থানার এসআই মোজাম্মেল হকসহ গ্রেফতার ৪

ছিনতাইকালে ডেমরা থানার এসআই মোজাম্মেল হকসহ গ্রেফতার ৪

স্টাফ রিপোর্টারঃ

নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানা এলাকায় ছিনতাই ও অপহরণের চেষ্টাকালে পুলিশের এক উপ-পরিদর্শক (এসআই)সহ ৪জনকে গ্রেফতার করেছে আড়াইহাজার থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৯ মার্চ) রাতে উপজেলার প্রভাকরদি বাজার এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এ সময় গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে সরকারি পিস্তল ও হ্যান্ডকাফসহ ছিনতাইকৃত টাকা উদ্ধার করা হয়।গ্রেফতারকৃতরা হলেন- ডেমরা থানার এস আই মোজাম্মেল হক (৩৭), রূপগঞ্জের ভুলতা এলাকার মাসুদ মিয়ার ছেলে আতিকুর রহমান ওরফে সোহেল (২৯), একই এলাকার মনজুর হোসেনের ছেলে হালিম মিয়া( ২০) ও বিজয় (২৬)।এ ঘটনায় ছিনতাইয়ের শিকার সজীব শুক্রবার (১০ মার্চ) বিকেলে আড়াইহাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলায় বাদী সজীব উল্লেখ করেন, বৃহস্পতিবার রাতে তিনি ও তার বন্ধু রাসেল মিয়া রূপগঞ্জ উপজেলার গাউসিয়া এলাকা থেকে সিএনজিতে চড়ে নিজ বাড়ি আড়াইহাজারের প্রভাকরদীর উদ্দেশ্যে যাচ্ছিলেন। যাত্রাপথে সজীব তার মামা সবুজের (৪০) সঙ্গে দেখা করার জন্য আড়াইহাজারের প্রভাকরদি বাজার সংলগ্ন আবদুর রউফের ভাঙারির দোকানের সামনে সিএনজি থেকে কাশবনের মাঠে নামেন।

তবে, সেখানে যাওয়া মাত্র পুলিশের এসআই মোজাম্মেলসহ ৪জন তাদের ঘিরে ফেলেন। এ সময় মোজাম্মেল তার সঙ্গে থাকা পিস্তল বের করে নিজেদের পুলিশের সদস্য বলে পরিচয় দেন এবং সজীব ও তার বন্ধু রাসেলকে হাতকড়া পরিয়ে দেন। এক পর্যায়ে তাদেরকে বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে এবং সজীবের কাছে থাকা নগদ ৮২ হাজার ৫শ টাকা, মোবাইল ফোন, তার বন্ধু রাসেলের কাছে থাকা ৩৫ হাজার টাকা ও মোবাইল ছিনিয়ে নেয় তারা।

মামলায় সজীব আরও উল্লেখ করেন, এক পর্যায়ে আসামিরা তাদেরকে হাতকড়া পরানো অবস্থায় কাশবনের মাঠ থেকে টেনে হেঁচড়ে সামনের রাস্তায় নিয়ে যায় এবং ধস্তাধস্তি করে একটি সিএনজিতে উঠানোর চেষ্টা করে। এ সময় সজীব ও তার বন্ধু রাসেল চিৎকার করলে রাস্তায় টহলরত এএসআই নুরে আলমের নেতৃত্বে আড়াইহাজার থানা পুলিশের একটি দল এগিয়ে আসে। সেখানে মোজাম্মেল নিজেদের ডেমরা থানা পুলিশের সদস্য পরিচয় দিলে এএসআই নুরে আলম তাদের পরিচয়পত্র দেখতে চাইলে তারা নিজেদের পরিচয়পত্র দেখাতে ব্যর্থ হয়। বিষয়টি ছিনতাই আঁচ করতে পেরে এএসআই নুরে আলম আড়াইহাজার থানায় খবর দিলে অপর একটি পুলিশ টিম ঘটনাস্থলে এসে আসামিদের গ্রেফতার করে।

আড়াইহাজার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাহিদ মাসুম বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামিদের জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মামলাটি ডিবি পুলিশ তদন্ত করবে।এ বিষয়ে ডেমরা থানার অফিসার ইনচার্জ শফিকুর রহমান বলেন,”এস আই মোজাম্মেল হোসেন নামে একজন এসআই ডেমরা থানায় কর্মরত আছে। তবে, গ্রেফতারকৃত অন্য তিন আসামি তার থানার নয়”। ওসি আরো জানান – এসআই মোজাম্মেল হক ডেমরা থানা এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকতেন, ঘটনার তারিখে তার ডিউটি ছিলনা।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © 2021
ভাষা পরিবর্তন করুন »